দেশে ফিরেই গ্রেফতার লামিচানে

|

ছবি: সংগৃহীত

গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রায় এক মাস পর বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) দেশে ফিরেছেন নেপালের ক্রিকেটার সন্দীপ লামিচানে। কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পরপরই তাকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।

লামিচানের দেশে ফেরার বিষয়ে খোঁজ রাখতে কাঠমান্ডু পুলিশের বিশেষ কিছু করতে হয়নি। এক ফেসবুক বার্তায় দেশে ফেরার ঘোষণা দিয়েছিলেন লামিচানে নিজেই। কোন ফ্লাইটে, কখন কাঠমান্ডুতে পৌঁছাবেন, সেটাও তিনি সেই বার্তায় জানিয়েছিলেন।

‘ষড়যন্ত্রমূলক মামলা’য় আইনি লড়াই চালিয়ে আবারও ক্রিকেট মাঠে ফেরার প্রত্যয় জানিয়েছেন ২২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

লামিচানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেছিলেন ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরী। মামলার সময় সিপিএল টি-টোয়েন্টি খেলতে ক্যারিবিয়ানে ছিলেন তিনি। দুই দিন পর কাঠমান্ডুর একটি আদালত লামিচানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। এ ঘটনায় নেপাল ক্রিকেট বোর্ড (সিএএন) তাকে জাতীয় দলের অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেয়। বাদ পড়েন সিপিএল থেকেও।

আত্মপক্ষ সমর্থন করে লামিচানে ফেসবুক পোস্টে লেখেন, জনসাধারণের সমর্থন ও সমালোচনামূলক মন্তব্যকে আমি প্রেরণা ও শক্তি হিসেবে নিচ্ছি। আমি নিশ্চিত যে আমাদের আইনি ব্যবস্থায় নির্দোষ প্রমাণিত অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কিছু ব্যবস্থা অবশ্যই থাকবে। আমি শিগগিরই আমার বিরুদ্ধে করা অন্যায় মামলা এবং অভিযোগের বিরুদ্ধে আইনি সহায়তা চাইব।

তিনি আরও লেখেন, আমি নিশ্চিত যে আমি ন্যায়বিচার পাব এবং আমার প্রিয় দেশের নাম ও খ্যাতি কুড়াতে শিগগিরই ক্রিকেটের মাঠে ফিরে আসব।’

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply