হোন্ডায় সওয়ার হয়ে দুরন্ত সেনেগালকে ছুঁলো জাপান

|

গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচেই পোল্যান্ডের বিপক্ষে দেখা গেছে দুরন্ত সেনেগালকে। সাদিও মানেদের দুর্বার গতির কাছে হার মেনেছিল ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দলটি। দ্বিতীয় ম্যাচে এশিয়ার পরাশক্তি জাপানের বিপক্ষে সেনেগালকেই এগিয়ে রেখেছিলেন ফুটবল বোদ্ধারা। যদিও প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছিল জাপান। কিন্তু, লাল কার্ডের কারণে কলম্বিয়া তখন ১০ জনের খর্বশক্তির দল। ইনজুরির কারণে মূল একাদশে ছিলেন না কলম্বিয়ার মূল স্তম্ভ হামেস রড্রিগেজও। তবে, সব হিসেব ভুল প্রমাণ করে শেষ পর্যন্ত সেনেগালকে রুখে দিলো ‘অভিজ্ঞ’ কেইসুকে হোন্ডার জাপান।

রোববার একাতেরিনবার্গে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে অবশ্য শুরুতেই এগিয়ে যায় সেনেগাল (১-০)। ১১ মিনিটে লিভারপুলের হয়ে মাঠ মাতানো সাদিও মানে লক্ষ্যভেদ করেন। তবে, মিডফিল্ডার তাকাশি ইনুইয়ের গোলে প্রথমার্ধেই সমতায় ফেরে জাপান। ।

দ্বিতীয়ার্ধে আরও জমে ওঠে খেলা। এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় দু’দলই যে তখন মরিয়া। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণের ম্যাচটি যেকোনো ফুটবলপ্রেমীর মন তুষ্ট করবে। কিন্তু, সমর্থকের মন তো বেশি কিছুই চায়। ৭১ মিনিটে পরিকল্পিত একটি আক্রমণ থেকে গোল করে সেনেগাল সমর্থকদের আনন্দে মাতান মুসা ওয়াগু।

‘হাল না ছাড়া’ মনোভাব তো জাপানিদের রক্তেই আছে। তুলনামূলক কম সামর্থের দল হলেও ‘অভিজ্ঞতার’ ভারে তো পিছিয়ে নেই তারা। ৭ মিনিট পরই ‘অভিজ্ঞ’ কেইসুকে হোন্ডার গোলে সমতায় ফিরে জাপান। সেনেগাল গোলরক্ষকের ভুলে ফাঁকায় পাওয়া বল ঠাণ্ডা মাথায় জালে জড়ান জাপানের প্রথম সুপারস্টার। এ বিশ্বকাপে স্রেফ অভিজ্ঞতার জোরে দলে ঠাঁয় পেয়েছিলেন। সেটির মূল্য কত, কলম্বিয়া ম্যাচে ফ্রি-কিক থেকে গোল করিয়ে একবার প্রমাণ দিয়েছেন। আজ আবার দিলেন।

প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচের সফল সমাপ্তি যদি হয় ‘ড্র’ তাহলে দু’দলেরই খুশি থাকা উচিত। বিশেষ করে দারুণ জমে ওঠা গ্রুপ ‘এইচ’র খেলায় সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে দল দুটি।। এক জয় এবং এক ড্রয়ে দুই দলেরই সংগ্রহ সমান ৪ পয়েন্ট করে। গ্রুপের শেষ ম্যাচে সেনেগাল মুখোমুখি হবে কলম্বিয়ার এবং জাপান লড়বে পোল্যান্ডের সঙ্গে। দুটি ম্যাচই হবে আগামী ২৮ জুন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply