তিন কিশোর সন্তানকে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে পাঠাবেন কাদিরভ

|

ছবি: সংগৃহীত

তিন কিশোর সন্তানকে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে পাঠাবেন রাশিয়ার চেচেন নেতা রমজান কাদিরভ। সোমবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন নিজেই। তার তিন ছেলের বয়স যথাক্রমে ১৪, ১৫ ও ১৬ বছর। খবর বার্তা সংস্থা এপির।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ছেলেদের যুদ্ধে পাঠানোর ঘোষণা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রমজান কাদিরভ লিখেছেন, একজন বাবার উচিত, তাদের সন্তানদের এ শিক্ষা দেয়া যে কীভাবে তারা তাদের পরিবার, দেশের মানুষ ও পিতৃভূমি রক্ষা করবে।

বার্তা আদান-প্রদানের অ্যাপ টেলিগ্রামে দেয়া ওই বার্তায় কাদিরভ আরও লিখেছেন, তার ছেলেরা যখন অনেক ছোট, তখন থেকেই তিনি তাদের সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়া শুরু করেন। এখন তাদের সত্যিকারের যুদ্ধের অভিজ্ঞতা নেয়ার সময় এসেছে।

কাদিরভের ওই পোস্টে দেয়া একটি ভিডিও চিত্রে দেখা যাচ্ছে, তার তিন ছেলে একটি প্রশিক্ষণ মাঠে বিভিন্ন ধরনের অস্ত্রের মহড়া চালাচ্ছেন। ২০০৭ সাল থেকে রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় চেচনিয়া প্রজাতন্ত্রের শাসক কাদিরভ। ওই বছর রমজান কাদিরভকে চেচনিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করেন ভ্লাদিমির পুতিন।

সাম্প্রতিক সময়ে ইউক্রেনীয় বাহিনীর প্রতিরোধের মুখে রুশ বাহিনীর পিছু হটার বিষয়টি মানতে পারছেন না রমজান কাদিরভ। এ জন্য একাধিকবার রুশ বাহিনীর নেতৃস্থানীয় কর্মকর্তাদের সমালোচনা করে বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, যেকোনো সংঘাতে ১৮ বছরের কম বয়সীদের সরাসরি অংশগ্রহণ ঠেকাতে জাতিসংঘের একটি চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশের একটি রাশিয়া। এদিকে সংঘাতে ১৫ বছরের কম বয়সীদের অংশগ্রহণ যুদ্ধাপরাধ বিবেচনা করে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। যদিও আইসিসির এই বিধানকে রাশিয়া স্বীকৃতিই দেয়নি।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply