ঠাকুরগাঁওয়ে নাস্তা খাওয়াকে কেন্দ্র করে আনসার ও স্থানীয়দের সংঘর্ষে আহত ৮

|

সংঘর্ষ চলাকালীন ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজ থেকে সংগৃহীত ছবি।

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে হোটেলে নাস্তা খাওয়াকে কেন্দ্র করে আনসার সদস্য ও স্থানীয়দের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আনসারসহ আহত হয়েছেন অন্তত ৮ জন।

সোমবার রাতে (৩ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৮টায় ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের গোবিন্দনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা গেছে, রোববার (২ অক্টোবর) বিকেলে গোবিন্দনগর এলাকায় একটি খাবারের হোটেলে নাস্তা খেতে আসেন এক আনসার সদস্য। এ সময় খাবার দিতে বিলম্ব হলে ওই আনসার সদস্য হোটেল কর্মচারীর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং তার শার্টের কলার ধরে গালিগালাজ ও দেখে নেয়ার হুমকি দেন। এরপরের দিন, সোমবার রাতে এক আনসার সদস্য ওই বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গেলে হোটেল কর্মচারী ও আনসার সদস্যের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনা শোনার পর আনসারের প্রায় ২০-২৫ জন সদস্য লাঠিসোটা নিয়ে হোটেল কর্মচারীসহ স্থানীয় পথচারীদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ৮ জনকে ক্যাম্পে তুলে নিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে উঠলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাসুদ রানা নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি জানান, তিনি বসে পত্রিকা পড়ছিলেন, এ সময় আনসার সদস্যরা তাকে বেধড়ক মারপিট করতে শুরু করে এবং তার কোনো কথা না শুনেই তাকে ক্যাম্পে তুলে নিয়ে যায় এবং সেখানেও তার উপর অমানবিক নির্যাতন করা হয়। এ ঘটনায় তার ওপর নির্যাতন চালানো আনসার সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও বিচার দাবি করেছেন তিনি।

৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দোলন কুমার মজুমদার জানান, উত্তেজিত জনতাকে সরিয়ে দিতে আনসার সদস্যরা লাঠিচার্জ করলে তিনিও আহত হন। পরে আনসারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে আটককৃতদের ছাড়িয়ে আনা হয়েছে।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও ১ আনসার ব্যাটালিয়ন সদর দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে মুঠোফোন একাধিকবার যোগাযোগ করেও সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি কামাল হোসেন জানান, ক্যাম্পে তুলে নেয়া ব্যক্তিদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে । এ ঘটনায় এক আনসার সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply