বিসিবিতে কথার লড়াই: মিথ্যাচার বলে দাবি পাপনের, প্রমাণ দিতে প্রস্তুত মোবাশ্বের

|

বিসিবি সভাপতি অসহায়, তাকে সব কিছু শিখিয়ে দেয়া হয়; স্থপতি মোবাশ্বের হোসেনর করা এমন মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন নাজমুল হাসান। বিসিবি প্রধান বললেন, সবসময়ের মতোই মিথ্যা কথা বলছেন তিনি। যদিও টেলিফোন করে পাপন এমন কথাই বলেছিলেন, দাবি করছেন মোবাশ্বের। প্রয়োজনে প্রমাণ দিতেও চান তিনি।

রোববার (২ অক্টোবর) দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা, প্রায় ৫ ঘন্টা চলে বিসিবির বোর্ড সভা। তাতে আসেনি বড় কোনো সিদ্ধান্ত। তাই সভা শেষে কথা বলতেও চাননি নাজমুল হাসান পাপন। কথা নেই বলেই হয়তো সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে চলে আসে স্থপতি মোবাশ্বের হোসেনের প্রসঙ্গ।

মোবাশ্বের হোসেনের সব কথা উড়িয়ে দিয়ে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, আমি উনাকে কল করেছিলাম, একটা বিষয়ের জন্য। উনি প্রতিনিয়ত যে বলে যায়, আমি যদি বলি মিথ্যে, তাহলে অনেকে মনে কষ্ট পাবে। কিন্তু উনি প্রতিনিয়ত বলে যায়, উনার তো একটা অবস্থান আছে। উনার পক্ষে কী এটা মানায়? দল নির্বাচন কী হবে, না হবে, বেস্ট ইলেভেন কী হবে আমি কিছুই জানি না। এটা তো আজকে না, আমি সবসময় বলে আসতেছি।

এমন কথার পরিপ্রক্ষিতে মোবাশ্বের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন প্রমাণের। এই ক্রিকেট সংগঠকের দাবি, উনি কয়বার ফোন করছে, তা আমার ফোনের মধ্যেই রয়েছে। আমার কাছে উনি হঠাৎ ফোন করলেন কেন? একবার নয়, দুইবার ফোন করছেন। কোনো সমস্যা হলে সে আমাকে ফোন করে। আমাকে ফোন করে কেন? তার কাছে আমি কখনও ফোন করছি, সে প্রমাণ করতে পারবে?

এর আগেও অনেকবার বিসিবির গঠনতন্ত্র ও নির্বাচন নিয়ে আদালতে গিয়েছিলেন মোবাশ্বের হোসেন। কথার লড়াই ছিল সব সময়।

এদিকে, নাজমুল হাসান পাপন বলেন, আমি অসহায়, উনি শুনলে যদি খুশি হন, তাহলে আমি অত্যন্ত অসহায়।

বিপরীতে মোবাশ্বের হোসেনের দাবি, উনাকে এমন কথাও বলছি, সবসময় আপনাকে যা ইচ্ছা তাই কথা বলি। আপনি আমাকে এগুলো বলতেছেন কেন? আপনি যা ইচ্ছা তাই বলেন, আপনি সবসময় সত্য কথা বলেন। সেজন্য আপনার কাছে আমার দুঃখের কথাগুলো জানাই।

বিসিবি প্রধান আরও বললেন, কেউ যদি এসব বলে মজা পায়, মজা পাক না। অসুবিধাটা কী?

আবারও মাঠের পারফরমেন্স ছাপিয়ে বিসিবিতে এখন কথার লড়াই। এই লড়াইয়ে ক্রিকেট কত লাভবান হচ্ছে সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে ভক্তদের মনে!

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply