ডলারের বদলে টাকা-রূপিতে আন্তঃবাণিজ্য পরিচালনায় আগ্রহী আমদানিকারকরা

|

ডলারের বিকল্প হিসেবে টাকা-রূপিতে আন্তঃবাণিজ্য পরিচালনায় আগ্রহী স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া। আর এই উদ্যোগের পক্ষে আছেন আমদানিকারকরাও। গত কয়েক মাস ধরে ডলারের বাজারে অস্থিরতা চললেও রুপির বিনিময়মূল্য তুলনামূলক স্থিতিশীল রয়েছে। ডলরের মূল্য বাড়ায় ঋণপত্রের মাধ্যমে আমদানিকৃত পণ্যের বিল পরিশোধে অনিশ্চয়তা তৈরি হওয়ায় আর্থিকভাবে ক্ষতির মুখে পড়েন আমদানিকারকরা। এ অবস্থায় টাকা-রূপিতে ব্যবসা করা গেলে উভয় পক্ষ লাভবান হতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এখনো কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছায়নি।

আমদানিকারকরা বলছেন, আমার যথেষ্ট টাকা আছে, কিন্তু ডলার না থাকলেই আমি দেউলিয়া হবো এটা তো ঠিক না। তারা জানাচ্ছেন, এক লাখ টাকার এলসি করলে আমাকে ৬ লাখ টাকা বেশি দিতে হয়। তাই মার্কিন ডলারের ব্যবহার এড়িয়ে টাকা ও রুপির মাধ্যমে ব্যবসার পরিচালনার পক্ষে অনেক ব্যবসায়ী। তাদের দাবি, বাংলাদেশ ও ভারত দুই দেশের সরকার যদি টাকা ও রুপির মান নির্ধারণ করে দেয় তাহলে আর ডলারের ওপর নির্ভরশীল হতে হবে না।

এদিকে, রূপি ও টাকার মাধ্যমে আন্তঃবাণিজ্য পরিচালনার বিষয়টি পর্যালোচনা করা হচ্ছে। তবে এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংক এখনো নীতিগত সিদ্ধান্তে পৌঁছায়নি উল্লেখ করে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমদানি ও রফতানিকারকরা যদি মনে করেন স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার মাধ্যমে লেনদেন করলে তাদের সুবিধা হবে, তাহলে তারা সে পদক্ষেপ নিতে পারে। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply