টিকে থাকার মিশনে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে নামছে আর্জেন্টিনা

|

রাশিয়া বিশ্বকাপে টিকে থাকার মিশনে রাতে মাঠে নামছে দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্বে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ড্র করায় ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে জয় ভিন্ন কোনো পথ নেই আলবিসেলেস্তেদের। অন্যদিকে, এই ম্যাচে জিতে নক আউট পর্বের পথটা পরিষ্কার করে রাখতে চায় মডরিচ-মানজোকিচদের ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচটি শুরু হবে বৃহস্পতিবার রাত ১২টায়।

গত ম্যাচে আইসল্যান্ডের রক্ষণ দেয়াল ভাঙতে পারেননি লিওনেল মেসিরা। জয়হীন আলবিসেলেস্তেদের এবার আরো কঠিন পরীক্ষা, কারণ প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া। হারলে বিদায়ের সন্নিকটে, তাই সর্বোচ্চটা দিতে দলে বড় ধরনের রদবদল আনছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। আক্রমণভাগ থেকে ডি মারিয়া আর ম্যাক্সি মেজার সঙ্গে বাদ পড়তে পারেন ডিফেন্ডার মার্কোস রোহোও। সেক্ষেত্রে প্রথম একাদশে ঢুকতে পারেন পাভন ,পেরেজরা।

আগের দিন মেসির পেনাল্টি মিসে সমালোচনার ঝড় চরমে। ৩১ বছর বয়সি এই সুপারস্টারের উপর চাপ কমাতে ফরমেশনেও পরিবর্তন আনছেন কোচ। মিডফিল্ডকে শক্তিশালি করতে চলছে ৩-৪-৩ ফরম্যাটে খেলার পরিকল্পনা।

সাম্পাওলি জানান, এটা সবসময়ই হয়ে থাকে যখন আপনি একজন খেলোয়াড়ের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েন। মেসির কোনো সমস্যা বা দোষ দেখি না। সে সবসময়ই মাঠে থাকে বাড়তি কিছু দেবার জন্য। কিন্তু দলের সব দোষ তো আর তার উপর চাপিয়ে দেয়া যায় না।

আর্জেন্টিনার যেখানে দুর্বলতা সেই মিডফিল্ডই শক্তিমত্তা ক্রোয়েশিয়ার। দারুণ ব্যালেন্সড এক দলের মধ্যমাঠের কাণ্ডারি হয়ে থাকছেন লুকা মডরিচ, কোভাচিচ, প্যারিসিচ আর মেসির বার্সা সতীর্থ ইভান রাকিটিচ। রাকিটিচের পরিকল্পনা মতোই এই ম্যাচেও মেসিকে বাক্সবন্দি করতে চাইছে র‍্যাঙ্কিংয়ের ২০ নাম্বার দলটি।

আজকের ম্যাচে আর্জেন্টিনা অনেক বেশি আগ্রাসী ভূমিকায় থাকবে বলেই মনে করেন ইভান রাকিটিচ। বলেন, তারা যেকোনো সময় আপনার সব আশা শেষ করে দিতে পারে। তাই এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দল হিসেবে মাঠে নামতে হবে। শেষ ম্যাচে তারা কি করেছে সেটা দেখার বিষয় নয়। নিজেদের সেরাটা খেলেই পরের পর্ব নিশ্চিত করতে চাই আমরা।

আগের ম্যাচে নাইজেরিয়াকে হারিয়ে দারুণ ছন্দেও আছে ক্রোয়াটরা। যার রেশ ধরে ২ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত তো বটেই, গ্রুপ চ্যাম্পিয় হবারও স্বপ্ন সাজিয়েছেন মারিও মানজুকিরা।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply