কাতারের সাথে স্থল সীমান্ত ছিন্ন করতে খাল কাটছে সৌদি!

|

FILE PHOTO: Buildings are seen from across the water in Doha, Qatar June 5, 2017. REUTERS/Stringer/File Photo

আরব উপদ্বীপের দেশ কাতারের তিন দিকে সমুদ্র। শুধু একদিকে রয়েছে স্থল সীমান্ত। সেই সীমান্ত সৌদি আরবের সাথে। সৌদি সরকার পরিকল্পনা করছে, একমাত্র এই স্থল সংযোগ কেটে দিয়ে ছোট্ট দেশটিকে দ্বীপ রাষ্ট্রে পরিণত করতে। এজন্য বিশাল একটি খাল কাটার প্রকল্প হাতে নিয়েছে রিয়াদ।

মূলত, এক বছর ধরে অবরোধ আরোপের পর কাতারকে নমনীয় করতে না পেরে এই উদ্যোগ নিয়েছে সৌদি সরকার। মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আই জানিয়েছে, ‘সালওয়া ক্যানেল’ নামের খালটি খননের জন্য চলতি মাসের ২৫ জুনের মধ্যে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে।

৬০ কিলোমিটার দীর্ঘ খালটি খননের জন্য ইতোমধ্যে ৫টি আন্তর্জাতিক কোম্পানি দরপত্র জমা দিয়েছে। ২৫ জুনের পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে সৌদি সরকার প্রকল্পের জন্য মনোনীত কোম্পানির নাম জানাবে। সৌদি দৈনিক ‘মক্কা’ জানিয়েছে, কাজ শেষ করার জন্য এক বছর সময় পাবে সংশ্লিস্ট কোম্পানি।

৫ লাখ ৩০ হাজার ডলার বাজেটের খালটি ৬০ কিলোমিটার দীর্ঘ, ২০০ মিটার প্রশস্ত এবং ১৫ থেকে ২০ মিটার গভীর হবে। ৩৩ মিটার লম্বা এবং ৩০০ মিটার দীর্ঘ জাহাজ খালটিতে চলাচল করতে পারবে। খালটির তীরে হোটেল, রিসোর্ট নির্মাণের পরিকল্পনাও আছে।

এছাড়া সেখানে একটি সামরিক ঘাঁটি এবং পারমাণবিক বর্জ্য ফেলারও একটি জায়গা থাকবে। পুরো প্রকল্পটি সৌদি ভূখন্ডে হওয়াতে কাতারের অভিযোগ করার সুযোগ থাকবে না। আরব আমিরাত ও সৌদি বেসরকারি বিনিয়োগকারীরা এতে অর্থায়ন করছেন। আর মিশরীয় কিছু প্রতিষ্ঠান খনন কাজে সহায়তা করবে।

ইরানের সাথে সম্পর্ক বৃদ্ধি এবং মুসলিম ব্রাদারহুড ও হামাসকে আর্থিক সহায়তা দেয়ার অভিযোগে ২০১৭ সালের ৫ জুন স্থল-জল- ও আকাশপথে কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করে সৌদি আরব ও তার তিন মিত্র দেশ।









Leave a reply