বাংলাদেশের সাথে বাণিজ্যে রুপি ও টাকা ব্যবহারের সিদ্ধান্ত স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার

|

বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের ব্যবসা-বাণিজ্যে মার্কিন ডলারের ব্যবহার এড়িয়ে চলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া। ভারতের সবচেয়ে বড় এই ব্যাংক তার শাখাগুলোতে দেওয়া এক চিঠিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। প্রতিবেশী দুই দেশের বাণিজ্যে ডলারের পরিবর্তে টাকা ও রুপি ব্যবহার করতে রফতানিকারকদের আহ্বান জানানো হয়।

শাখাগুলোতে পাঠানো প্রজ্ঞাপনে এ সম্পর্কে বলা হয়েছে, আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি এবং সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের বিপরীতে বাংলাদেশি টাকার অবমূল্যায়নের কারণে দেশটি এখন বৈদেশিক মুদ্রার ঘাটতির আশঙ্কায় রয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার ঘাটতি ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশের সঙ্গে লেনদেনে ডলার ও অন্যান্য বৈদেশিক মুদ্রার ব্যবহার এড়িয়ে চলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে এতে উল্লেখ করা হয়। প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, তবে দ্বিপক্ষীয় লেনদেনে ভারতীয় রুপি ও টাকার ব্যবহার চলমান থাকবে।

গত মাসে বাংলাদেশে আমদানিতে ডলারের সর্বোচ্চ দর ওঠে ১১২ টাকা, এখন তা ১০৮ টাকার মতো। সম্প্রতি চীনের মুদ্রা ইউয়ানে করেসপন্ডেন্ট অ্যাকাউন্ট খোলার অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ ছাড়া রাশিয়ার সঙ্গে টাকা ও রুবলে লেনদেনেরও আলোচনা চলছে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের প্রায় ৫০ কোটি ইউএস ডলারের লেনদেন হয়। ব্যাংকারাও মনে করে, সিঙ্গেল কারেন্সির ওপর নির্ভরশীলতা কমানো প্রয়োজন।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply