জয় দিয়ে সেনেগালের বিশ্বকাপ মিশন শুরু

|

প্রথম ম্যাচেই পোল্যান্ডকে ২ হারিয়ে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলো সেনেগাল। প্রথমার্ধে থিয়াগো সিয়নেকের গোলে এগিয়ে যায় সেনেগাল। এরপর ৬১ মিনিটে মাবাই নিয়াংয় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।

এবারের বিশ্বকাপে আফ্রিকার প্রথম দেশ হিসেবে জয় পায় সেনেগাল। প্রথম ম্যাচে মিশরকে হারিয়েছে উরুগুয়ে। পরের ম্যাচে ইরানের কাছে গেরেছে মরক্কো। নাইজেরিয়া হেরেছে ক্রোয়েশিয়ার কাছে। তিউনিসিয়া হেরেছে ইংল্যান্ডের কাছে। শেষ প্রতিনিধি হিসেবে সেনেগাল জয় পেয়ে উচু করে রাখে আফ্রিকান পতাকা।

শুরু থেকেই আক্রমণাত্বক খেলতে থাকে আফ্রিকান এ দলটি। খেলার ৩৭ মিনিটে আক্রমণে যায় সেনেগাল। মাবাই নিয়াং পোল্যান্ডের জাল লক্ষ্য করে দুর্বল শট নিলে তা ক্রস করার চেষ্টা করেন পোল্যান্ড ডিফেন্ডার মাইকেল পাজদ্যান। তবে তার পায়ে লেগেই মূলত বল জড়িয়ে পড়ে নিজেদের জালে। গোল কিপার সাদিয়ো ম্যানে কিছু বুঝে উঠার আগেই বল জড়িয়ে পড়ে পোল্যান্ডের জালে।

এদিকে খেলার ৬১ মিনিটে পোল্যান্ডের জালে দ্বিতীয় বলটি জড়িয়ে দেন স্ট্রাইকার মাবাই নিয়াং। সাবেক ওয়েস্ট ব্রোম মিড ফিল্ডার গ্রেজজর্জ ক্রাইচোয়িাকের ভুলের কারণেই এ গোলটি হজম করতে হলে পোল্যান্ডকে। গ্রেজজর্জ অগত্যা বল পায়ে নেওয়ার জন্য ডিফেন্স ভেঙ্গে এগিয়ে আসে। এসময় গোলকিপার বল সেইভ করতে আসলে গোল পোস্ট হয়ে যায় ফাঁকা।

এসময় নিয়াং সাইডবেঞ্চের কাছেই দাড়িয়ে ছিল। বল আসা মাত্রই দৌড়ে গিয়ে তার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সোজা পোল্যান্ড গোলমুখে দৌড়। অতঃপর পোল্যান্ড গোলমুখে আলতো পায়ে শট। ততক্ষণে বল গিয়ে জড়িয়ে পড়লো পোল্যান্ডের জালে।

২০০২ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো খেলতে এসেই হইচই ফেলে দেয় সেনেগাল। সেবার সেমিফাইনাল পর্যন্ত খেলে আফ্রিকার দেশটি। এরপর আর বিশ্বমঞ্চে খেলা হয়নি তাদের। দীর্ঘ ১৬ বছর পর আবারো মঞ্চ মাতাতে এসেছেন তারা। মুসলিম দলটির প্রত্যাশা, ২০০২ সালের পারফরম্যান্সকে ছাপিয়ে যাওয়া। এবারো তেমন কিছু করে দেখাতে দৃঢ় প্রত্যয়ী এর কাণ্ডারিরা।









Leave a reply