রেফারির সহায়তা চাইলেন নেইমার

|

বিশ্বকাপের এক ম্যাচে সর্বাধিকবার ফাউলের শিকার হওয়া খেলোয়াড় হলেন নেইমার। ব্রাজিলিয়ান এই তারকাকে গতরাতের ম্যাচে সুইসরা মোট ১০ বার ফাউল করেছে। ১৯৯৮ সালের পর এটি কোনো এক ম্যাচে একজন খেলোয়াড়কে সবচেয়ে বেশিবার ফাউলের রেকর্ড।

রস্তভ অন-ডন স্টেডিয়ামে সুইজারল্যান্ডের কাছে ড্র করার বিষয়টি মোটেও মেনে নিতে পারছেন না নেইমার। তার মতে, ড্র এর মতো ফলাফল এই ম্যাচে ব্রাজিলের খেলার সাথে যায় না। নিজেদের পয়েন্ট খোয়ানোর পেছনে পরোক্ষভাবে ফাউল করাকেই দায়ী করলেন তিনি।

সুইসদের করা বিতর্কিত গোলটি বাতিল চেয়েছিলেন সেলেকাও কোচ। নেইমারও এমনটিই চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় ওটা ফাউল ছিল।’

এর বেশি অবশ্য মন্তব্য করতে রাজি নন ব্রাজিলিয়ান প্রাণভোমরা। কিছুটা হতাশা মেশানো সুর তার কণ্ঠে। বললেন, ‘টিভি রিপ্লেতে বিষয়টি আমি দেখেছি। যেখানে চারজন রেফারি আছেন সেখানে এটা নিয়ে কথা বলা আমার সাজে না।’

ফাউল কমাতে রেফারিদের সহায়তা চেয়ে তিনি বলেন, ‘তাদের (রেফারি) উচিত নিজেদের দায়িত্ব ঠিকভাবে পালন করা।’

‘ড্র আমাদের পাওনা ছিল না’ বলে নেইমার জানালেন, আরও উন্নতি করার সুযোগ আছে তার দলের।

ম্যাচে এত সংখ্যক ফাউলের শিকার হওয়ার বিষয়ে বলেন, ‘আমাকে আঘাত করার পর খুব ব্যথা পেয়েছিলাম। খেলা শেষে আরেকটু ব্যথা লাগবে। তবে কী আর করা। আশা করি ঠিক হয়ে যাবে।’

বিরক্ত নেইমার আরও বলেন ‘এ নিয়ে আসলে আমার কিছু বলার নেই। পেশাদারিত্বের সাথে খেলে যাওয়াই আমার কাজ। এটা দেখা রেফারিদের দায়িত্ব। পরিবর্তীতে সব ঠিক হয়ে যাবে এমনটাই মনে করি।’









Leave a reply