ব্রাজিলকে রুখে দিয়ে সুইজারল্যান্ডের সতর্কবার্তা

|

রাশিয়া বিশ্বকাপ যেন বড় দলগুলোর জন্য অপয়া! বিশ্বকাপের ফেভারিট তকমাধারীদের মধ্যে কেবল ফ্রান্সই জয় দিয়ে শুরু করতে পেরেছে। এছাড়া স্পেন, আর্জেন্টিনা, জার্মানির পর এবার হোঁচট খেলো অন্যতম ফেভারিট ব্রাজিলও। সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বিশ্বকাপ শুরু হলো নেইমার-কুতিনহোদের।

শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে উঠেছিল ম্যাচ। ব্রাজিলের আক্রমণের ধারটা একটু বেশিই ছিল। তবে, সুইজারল্যান্ডের জমাট রক্ষণব্যুহ ভেদ করতে পারছিলেন না নেইমার-জেসুসরা। ম্যাচের ২০-তম মিনিটে ফিলিপে কুতিনহো বক্সের বাহির থেকে জোরালো শট নেন। অনেক দিন চোখে লেগে থাকার মতো এক গোলে এগিয়ে যায় সেলেসাওরা। এর পর প্রথমার্ধে সুইজারল্যান্ড গোল পরিশোধের চেষ্টা চালালেও সফল হয়নি। এগিয়ে থেকেই মাঠ ছাড়ে পাঁচবারের বিশ্বজয়ীরা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আরও আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে সুইজারল্যান্ড। পাশাপাশি, ব্রাজিলের আক্রমণও অটুট ছিল। ৫০ মিনিটে শাকিরির কর্নার থেকে ম্যাচে সমতা ফেরান স্টিভেন জুবের। অনেকটা ফাঁকায় দাঁড়িয়ে হেডে গোল করেন তিনি। এরপর মরিয়া ব্রাজিল একের পর এক আক্রমণ করলেও সুইজারল্যান্ডের ডিফেন্স ভাঙতে পারেনি। বরং সুইজারল্যান্ডের ক্রমাগত ট্যাকলে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল নেইমাররা। নামের প্রতি সুবিচার করতে না পারায় জেসুসকে তুলে নিয়ে ফিরমিনোকে নামান ব্রাজিল কোচ তিতে। তাতে আক্রমণের ধার বাড়লেও জয়সূচক গোলটি আর মেলেনি।

একাধিক শট বার ঘেঁষে যাওয়ায় নিজেদের কিছুটা দুর্ভাগাই ভাবতে পারেন নেইমার-মার্সেলোরা। বিশেষ করে গোটা ম্যাচজুড়ে দুর্দান্ত খেলা মার্সেলো রক্ষণ সামলে একের পর এক আক্রমণে যেভাবে বল যোগান দিয়েছেন তাতে তার হতাশাটা একটু বেশিই হওয়ার কথা।

অন্যদিকে, দল হিসেবে দারুণ খেলেছে সুইজারল্যান্ড। পাওয়ার ফুটবলে জোর দিলেও শাকিরিদের গতি ও পায়ের কাজের আলাদা তারিফ না করলেই নয়।

সব কথার শেষ কথা, গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচগুলো ফেভারিটদের জন্য সতর্কবার্তাই দিচ্ছে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply