এক হ্যাটট্রিকে যত রেকর্ড রোনালদোর

|

বিশ্বকাপের প্রথম হাইভোল্টেজ ম্যাচ ছিল এটি। খেলাও হয়েছে সেরকম। টানটান উত্তেজনায় শেষ পর্যন্ত স্পেন-পর্তুগালের লড়াই ৩-৩ সমতায় সমাপ্তি ঘটেছে।

তবে সব ছাপিয়ে আলোচনায় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আলোচনার ঢেউ তোলাটাও স্বাভাবিক। নিজের প্রথম ম্যাচেই দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক উপহার দিয়ে রেকর্ড বুকে নাম লিখিয়েছেন তিনি।

ফুটবলে বরাবরই ত্রাসের নাম রোনালদো। ক্যারিয়ারে সেই প্রত্যুষ বেলা থেকে ক্লাব ও দেশের হয়ে চমক জাগানিয়া পারফরম করে আসছেন সিআরসেভেন।

এবারো তার ব্যত্যয় ঘটলো না। হ্যাটট্রিক করে ফের বিশ্বকে জানান দিলেন কেন বিশ্বসেরা তিনি।

স্পেনের বিপক্ষে হ্যাটট্রিকে ইতিহাসে পাতায় উঠে গেছেন রোনালদো। এবারের বিশ্বকাপে এটিই প্রথম হ্যাটট্রিক। এর আগে উদ্বোধনী ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন রাশিয়ার ডেনিস চেরিশভ।

রোনালদো হ্যাটট্রিকের ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার ডিয়েগো কস্তাও। অবশ্য তাকে তুলে নিয়েছিলেন কোচ ফার্নান্দো হিয়েরো। হ্যাটট্রিকের সুযোগ ছিল তার সামনেও।

তবে আসল চমকটা দেখিয়েছেন রোনালদোই। দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করে অসাধারণভাবে বিশ্বকাপ শুরু করলেন তিনি।

ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরে এ নিয়ে কোনো তৃতীয় পর্তুগিজ ফুটবলার তিন গোল করার নজির গড়লেন। এর আগে ১৯৬৬ বিশ্বকাপে উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে প্রথম পর্তুগিজ ফুটবলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেন ইউসেবিও।

আরেকজনের নাম পওলেতা। ২০০২ বিশ্ব আসরে পোল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন তিনি।

সবমিলিয়ে ক্যারিয়ারে এটি ৫১তম হ্যাটট্রিক রোনালদো। কর সংক্রান্ত ঝামেলায় স্পেনের সঙ্গে সম্পর্কটা ভালো যাচ্ছে না তার। স্প্যানিশদের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে যেন তারই কড়া জবাব দিলেন তিনি।

এদিন একাধিক রেকর্ড গড়েছেন রোনালদো। এ নিয়ে টানা চার বিশ্বকাপে গোল করার কীর্তি গড়েছেন তিনি। এর আগে ২০০৬, ২০১০ ও ২০১৪ বিশ্বকাপেও গোল করেন পাঁচবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার।

শুধু তাই নয়, বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি বয়সী ফুটবলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করার রেকর্ড গড়েছেন পর্তুগাল প্রাণভোমরা। ৩৩ বছর ১৩০ দিন বয়সে বিশ্বমঞ্চে হ্যাটট্রিকের গৌরব অর্জন করলেন তিনি।

আরও একটি অনন্য নজির স্থাপন করেছেন রোনালদো। বিশ্বকাপে প্রথম কোনো ‍ফুটবলার হিসেবে স্পেনের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করার কৃতিত্ব দেখালেন পর্তুগিজ অধিনায়ক ।









Leave a reply