বিকেলে শিরোপা দাবিদার ফ্রান্সের মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া

|

সি গ্রুপের ম্যাচে শিরোপার অন্যতম দাবিদার ফ্রান্সের বিপক্ষে আজ মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া। র‍্যাঙ্কিংয়ের এগিয়ে থাকা ফ্রান্সের বড় শক্তি মাতুইদি, ডেম্বেলে, জিরু, গ্রিজম্যান, পল পগবা-র মতো এক ঝাঁক সুপার স্টার। তবে আলাদা নজড় থাকবে কিলিয়ান এম্বাপ্পের উপর। আর এশিয়ান প্রতিনিধি অস্ট্রেলিয়ার স্পটলাইট অভিজ্ঞ টিম কেইহিলের ওপর। শনিবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে এই ম্যাচ।

বিশ্বকাপের মিশনে নামার আগে সেরাদের তালিকায় ফ্রান্সকে রাখবে যে কেউই। দলের খেলোয়ারদের বর্তমান ফর্ম যেনো ২য় শিরোপার স্বপ্ন দেখাচ্ছে ফরাসিদের। বাছাই পর্বে এক চেটিয়া পারফর্ম করা গ্রিজম্যান-পল পগবারা এখনো ধরে রেখেছে নিজেদের ছন্দ।

গোল দেয়ার সংখ্যা কম হলেও, মাঠের খেলা ধরে রাখতে পটু দেশম শিষ্যদের লক্ষ্য শুরু থেকেই প্রতিটি ম্যাচ বাই ম্যাচ ধরে খেলা। ১৯৯৮ সালে শিরোপা জেতা দলটির অধিনায়ক এবার কোচ হিসেবে থাকায় বাড়তি অনুপ্রেরণা দলটির জন্য। রক্ষণে স্যামুয়েল উমতিতি, বেঞ্জামিনদের ভাঙ্গা বেশ কষ্টসাধ্যই হবে সকারুজদের জন্য।

সেই মাঝ মাঠে কাকে ছেড়ে কাকে খেলাবেন কোচ তাই ভাবনার বিষয়। কোচের প্রথম পছন্দ ৪-৪-২ অথবা ৪-৩-৩। যেখানে পল পগবার সাথে সামনে বল জোগানে কাজ করে যাবেন মাতুইদি, এন’গোলো কন্তে আর তলিসসো। আর আক্রমণভাগে শুরুর একাদশে গ্রিজম্যান, ডেম্বেলে আর এম্বাপ্পের ওপরই ভরসা রাখবেন দেশম। তাই অলিভার জিরুকে শুরুতে না দেখলেও অবাক হবার কিছু থাকবে না।

বাছাই পর্বে হন্ডুরাসের সাথে প্লে অফ খেলে বিশ্বকাপে আসা সকারুজদের মূল লক্ষ্যটা আসলে গ্রুপ পর্ব পেরুনোই। ডাচ কোচ ভ্যান মারউইকের প্রথম পছন্দ ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে দল সাজানো।

দলের পরিচিত মুখ টিম কাহিল হলেও একাদশে তার জায়গা না পাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। দলের মূল আলোটা থাকবে অ্যারোন ময়ের উপরই। ৩৪ ম্যাচের অভিজ্ঞতা থাকলেও গোল করেছেন মাত্র ৫টি। তবে প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভাঙতে বেশ পটু এই মিডফিল্ডার।









Leave a reply