লেবাননে অর্থনৈতিক মন্দায় সন্তান চাননি স্বামী, কথা না শোনায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা 

|

ছবি: সংগৃহীত

অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ায় গর্ভপাতের জন্য স্বামীর পক্ষ থেকে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছিল। কিন্তু তার এমন আবেদনে সাড়া না দেয়ায় শেষ পর্যন্ত ওই নারীকে মারধর করে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় স্বামী।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে লেবাননে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২১ বছর বয়সী ওই নারী নাম হানা মোহাম্মাদ খাদুর। স্বামীর দেয়া আগুনে দীর্ঘ ১১ দিন মৃত্যুর যন্ত্রণায় ছটফট করে বুধবার (১৭ আগস্ট) লেবাননের রাজধানী ত্রিপলির আল সালাহ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের ডাক্তার জানায়, মায়ের শরীর পুড়ে গেলেও অক্ষত ছিল শিশুটি। কিন্তু অপারেশন করে শিশুটিকে বের করে আনার আগেই তারও মৃত্যু হয়।

জানা যায়, লেবাননে যে অর্থনৈতিক সংকট চলছে তাতে সন্ত্রাস পৃথিবীতে ভূমিষ্ঠ হলে তাকে ভালোভাবে লালন পালন করা সম্ভব হবে না। এমন আশঙ্কা থেকে স্ত্রীকে গর্ভপাতের জন্য চাপ দিয়ে আসছিলেন স্বামী। কিন্তু স্ত্রী স্বামীর এ আশঙ্কাকে মানতে রাজি ছিলেন না। ফলে স্ত্রীর গায়ে আগুন দিয়ে তাকে শেষ করে দেন স্বামী।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply