নরকিয়া ও মহারাজের তোপে লর্ডসে চালকের আসনে প্রোটিয়ারা

|

ছবি: সংগৃহীত

প্রথম ইনিংস শেষে ১৬১ রানের বড় লিড নেয়ার পর কেশব মহারাজের জোড়া আঘাতে লর্ডস টেস্টে চালকের আসনে রয়েছে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। টেল এন্ডারদের লড়াইয়ে নিরাপদ লিড পেয়ে বোলিংয়েও ইংলিশদের ৪ উইকেট ফেলে দিয়ে স্বাগতিকদের চাপে রেখেছে ডিন এলগারের দল।

ইংল্যান্ডের করা ১৬৫ রানের জবাবে ৭ উইকেটে ২৮৯ রান করে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর আইনরিখ নরকিয়া, মার্কো ইয়ানসেন, কেশব মহারাজদের দারুণ ব্যাটিংয়ে ৩২৬ রানে শেষ হয় প্রোটিয়াদের প্রথম ইনিংস। ১৬১ রানে পিছিয়ে থেকে যেমন সূচনা দরকার ছিল বেন স্টোকসের দলের, তেমনটি হয়নি। ওপেনিং জুটি নিয়ে ইংলিশদের দুর্দশা হয়তো সহসাই কাটছে না। জোড়া আঘাতে জ্যাক ক্রলি ও ওলি পোপকে সাজঘরে পাঠিয়ে স্বাগতিকদের টপ অর্ডারকে আরও একবার ভঙ্গুর বানিয়ে দিয়েছেন কিছুদিন আগেই বর্ষসেরা প্রোটিয়া ক্রিকেটারের পুরস্কার জেতা কেশব মহারাজ।

ছবি: সংগৃহীত

এবার আর জো রুট, জনি বেয়ারস্টোরা পারেননি ইংল্যান্ডের ইনিংস মেরামত করতে। এনগিদির বলে জো রুট আউট হওয়ার পর আইনরিখ নরকিয়ার বলে সাজঘরে ফেরেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা জনি বেয়ারস্টো। কিছুটা ভরসা হয়ে টিকে ছিলেন ওপেনার অ্যালেক্স লিস। কিন্তু আইনরিখ নরকিয়া তার দ্বিতীয় শিকার হিসেবে লিসকে তুলে নিলে ইনিংস ব্যবধানের পরাজয় এখন চোখ রাঙাচ্ছে ইংলিশদের। এখন ক্রিজে আছেন ইংলিশ অধিনায়ক বেন স্টোকস। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেট হারিয়ে ৮৬ রান। প্রোটিয়াদের আবারও ব্যাটিংয়ে পাঠাতেই স্টোকসের দলকে করতে হবে আরও ৭৫ রান।

প্রথম দিনের ৬ উইকেটে ১১৬ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শুরু করে ইংল‍্যান্ড। শুরুতেই ৭৩ রান করা ওলি পোপকে তুলে নেন কাগিসো রাবাদা। এরপর ১৬৫ রানে অলআউট হয় ইংল‍্যান্ড। জবাবে, ডিন এলগার ও সারেল আরউই ৮৫ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন। আরউই করেন ৭৩ ও ৪১ রানের ইনিংস খেলে প্রোটিয়াদের লিড পেতে অবদান রাখেন কেশব মহারাজ। দিন শেষে ৪১ রান করে অপরাজিত ছিলেন অলরাউন্ডার ইয়ানসেন।

আরও পড়ুন: নেদারল্যান্ডসকে উড়িয়ে সিরিজ নিশ্চিত করলো পাকিস্তান

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply