টিকটক ভিডিও করতে সেতু থেকে লাফিয়ে নিখোঁজ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

|

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সিগঞ্জ সদরে টিকটক ভিডিও তৈরির জন্য মুক্তারপুর সেতু থেকে ধলেশ্বরী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ কিশোর মো. রাসেলের (১৭) ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌপুলিশ। নিখোঁজের ৩২ ঘণ্টা পর রোববার রাত ১১টার দিকে মুক্তারপুর সেতুর পশ্চিম প্রান্তে মালিপাথর এলাকা সংলগ্ন নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গতকাল শনিবার দুপুর ৩টার দিকে বন্ধু সাথে সেতুর উপর থেকে লাফ দিলে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয় সে। নিহত রাসেল বরিশাল হিজলা উপজেলার হেলাল বেপারীর ছেলে৷ পরিবারসহ সে সদর উপজেলার দশকানি এলাকায় ভাড়া বাসায় বাস করে আসছিল।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে অপর তিন বন্ধু সোহাগ, নাইম ও হামিমের সাথে ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে যায় রাসেল। মুক্তারপুর সেতুতে পৌঁছে টিকটক ভিডিও তৈরির জন্য রাসেল ও হামিম সেতুর ওপর থেকে নদীতে ঝাঁপ দেয়। এ সময় হামিম সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও ডুবে যায় রাসেল। এ ঘটনায় ৯৯৯-এ কল পেয়ে উদ্ধার অভিযানে নামে মুন্সিগঞ্জ ফায়ারসার্ভিস ও ডুবুরি দল। তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত তল্লাশি চালালেও খোঁজ মেলেনি তার।

মুক্তারপর নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ লুৎফর রহমান জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পাই নিখোঁজ ওই কিশোরে মরদেহ নদীতে ভেসে উঠেছে। খবর পেয়ে মুক্তারপুর সেতুর পশ্চিম পাশে ১০০ মিটার দূর থেকে মরদেহটি ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। মরদেহটি নৌপুলিশের হেফাজতে আইনি প্রক্রিয়ার কাজ চলছে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply