স্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন খালেদা জিয়া: চিকিৎসক

|

নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কারাগারে খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করেছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক প্রতিনিধি দল। প্রায় দেড় ঘণ্টা অবস্থান শেষে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে কারাগার থেকে বের হন তারা।

এসময় গত ৫ জুন দুপুরে খালেদা জিয়া অজ্ঞান হয়ে পড়ে গিয়েছিলেন বলে দাবি করেন প্রফেসর ডা. এফ এম সিদ্দিকী। তার ধারণা খালেদা জিয়া মাইল্ড স্ট্রোক করেছিলেন।

তিনি বলেন, উন্নত চিকিৎসা না করা হলে সামনে আরও বড় ধরণের স্ট্রোকের আশঙ্কা রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য অবিলম্বে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন তিনি। এর আগে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেয়ে বিকেল ৪টার পর কারাগার প্রবেশ করেন চার চিকিৎসক। প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন প্রফের ডা. ওয়াহিদুর রহমান, প্রফেসর ডা. এম এ কুদ্দুস।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন রাজধানীর বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়া পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন।









Leave a reply