যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যা, স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

|

পাবনা প্রতিনিধি:

যৌতুকের দাবিতে পাবনার চাটমোহর উপজলায় গৃহবধূ নাছিমা খাতুনকে হত্যার দায়ে স্বামী সিফাত আলীকে ফাঁসি ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে মামলার তিন আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

রোববার (১৪ আগস্ট) সকালে পাবনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মিজানুর রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সিফাত আলী চাটমোহর উপজলোর ধুলাউড়ি স্কুলপাড়া গ্রামের রব্বেল আলীর ছেলে। রায়ের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মামলা চলাকালে এক আসামির মৃত্যু হয়।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নাসিমাকে পরিবারের লোকজন নিয়ে মারপিট ও গলাটিপে হত্যা করে পালিয়ে যায় স্বামী সিফাত। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আরদেশ আলী বাদী হয়ে চাটমোহর থানায় ৫ জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করনে। দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়া ও ৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আজ আদালতের বিচারক নিহত নাছিমা সিফাত আলীকে ফাঁসির আদেশ ও দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় তিনজনকে বেকসুর খালাসের আদেশ দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন ট্রাইবুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট খন্দকার আব্দুর রকিব। আর আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট ইতি হোসেন মুক্ত।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply