শূন্য রান করায় রাজস্থান রয়্যালসের মালিকের চড় খেয়েছিলেন রস টেলর!

|

রাজস্থান রয়্যালসের জার্সিতে রস টেলর। ছবি: সংগৃহীত

বর্ণবাদের অভিযোগ তোলার পর নতুন এক বিস্ফোরক তথ্য জানালেন সাবেক কিউই ক্রিকেটার রস টেলর। আইপিএলে খেলার সময় খারাপ পারফরমেন্সের কারণে চড় খেতে হয়েছিল বলে দাবি করেছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক এই ক্রিকেটার। বলেছেন, শূন্য রানে আউট হওয়ায় রাজস্থান রয়্যালসের এক মালিক আমাকে চড় মেরেছিল।

সম্প্রতি প্রকাশিত রস টেলর: ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট নামক আত্মজীবনীতে মুখ খুলেছেন সাবেক এই ডানহাতি ব্যাটার। তিনি লিখেছেন, মোহালিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে রাজস্থান রয়ালসের ম্যাচে ১৯৫ রান তাড়া করছিলাম আমরা। আমি শূন্য রানেই এলবিডব্লিউ হয়ে যাই। আর পুরো দলও লক্ষ্যের ধারেকাছেও যেতে পারেনি। ম্যাচের পর খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফ মিলে টিম হোটেলের ছাদে যাই। শেন ওয়ার্ন ও লিজ হার্লিও ছিলেন সেই রেস্টুরেন্টে। রাজস্থান রয়্যালসের একজন মালিক এসে আমাকে বললেন, রস, শূন্য রান করার জন্য তো তোমাকে মিলিয়ন ডলার দেয়া হচ্ছে না। এর সাথে আমার গালে ৩-৪ বার চড় মারেন তিনি। তিনি হাসছিলেন, চড়ও জোরে ছিল না। কিন্তু আমার মনে হয়নি, তার এই কাণ্ডের পুরোটাই অভিনয়। সেই অবস্থায় আমি বিষয়টা ঘাটতে চাইনি। কিন্তু পেশাদার ক্রিকেটের সময়ে এমন ঘটনা ঘটতে পারে তা আমার মাথায়ও আসেনি।

রস টেলর আরও বলেন, মিলিয়ন ডলারের জন্য খেলতে যাওয়া দারুণ ব্যাপার। আর যখন আপনি এতগুলো টাকার জন্য খেলবেন, নিজেকে সেই অর্থের যোগ্য হিসেবে প্রমাণের তাড়নাও কাজ করে। আর যারা এই টাকা দিচ্ছে, তাদেরও উচ্চাশা থাকে। এটা পেসগাদার খেলা ও মানুষের প্রকৃতি, দুটোই ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। আমি রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে পারফর্ম করেছি। এরপর রাজস্থানে রয়্যালসে যাই। নতুন কোনো দলে গেলে নিশ্চয়ই আগের পারফরমেন্স দিয়ে চিড়া ভেজে না। সেখানে ৩-৪ ম্যাচে রান না পেলেই মুখের ওপর অনুভব করতে হয় শীতল চোখ।

এর আগে ২০০৮ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বেঙ্গালুরুর হয়ে খেলেছিলেন এই সাবেক। ২০১১ সালে খেলেছেন রাজস্থানের হয়ে। সবশেষ খেলেছেন দিল্লি ডেয়ারডেভিলস ও পুনে ওয়ারিওর্সের হয়ে।

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply