নিবন্ধন না থাকায় নোয়াখালীর ৪ ক্লিনিক সিলগালা

|

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় অবৈধ, লাইসেন্সবিহীন হাসপাতাল ও ক্লিনিকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এসময় লাইসেন্সসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ২টি ক্লিনিক-মেডিকেল সেন্টার ও ১টি ডায়াগনস্টিক ও ১টি চক্ষু হাসপাতাল সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

শনিবার ৯১৩ আগস্ট) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যমতে, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী অবৈধ ও চিকিৎসার নামে মানুষের সাথে প্রতারণা করছে এমন চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে দিন ব্যাপী অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে বেগমগঞ্জের জমিদারহাটের ফ্যামিলি কেয়ার মেডিকেল সেন্টার, ইউনিক চক্ষু অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতাল, ইউনাইটেড মেডিকেল সেন্টার এবং চৌমুহনী বাজারের ইউনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

অভিযানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা সালেহ আহম্মদ সোহেল, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার সাইফুদ্দিন মাহামুদ চৌধুরী।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সরকারের নির্দেশনা পেয়ে এর আগেও বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে অনেকগুলো অবৈধ প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছিল। চলতি অভিযানে বন্ধ করা হয়েছে আরও ৪টি অবৈধ প্রতিষ্ঠান। মানুষের উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে নিবন্ধন নেই, নিবন্ধন থাকলেও হালনাগাদ নেই এবং নিয়ম অনুযায়ী চিকিৎসক, সেবিকা ও টেকনোলজিস্টসহ লোকবল যেসব প্রতিষ্ঠানে নেই তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযান অব্যহত থাকবে। বৈধতা না থাকলে ওইসব প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে বলেও জানান স্বাস্থ্য বিভাগের এ কর্মকর্তা।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply