বলিভিয়ায় মাতাল যুবককে কফিনে ভরে জীবন্ত কবর

|

ছবি: সংগৃহীত

বলিভিয়ার এক যুবক দাবি করেছেন, তাকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে কফিনে ঢুকিয়ে মাটিচাপা দেয়া হয়েছিল। ১ আগস্ট দক্ষিণ আমেরিকার দেশ বলিভিয়ার এল আলতো এলাকায় মাদার আর্থ উৎসবের সময় এই ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম নিউজ১৮’র প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিক্টর হুগো মাইকা আলভারেজ নামের ওই যুবক বার্ষিক উৎসবে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। যেখানে আদিবাসীরা দেবী প্যাচামামার পূজা করার জন্য সমবেত হয়েছিলেন। উৎসবের উদযাপনে আলভারেজ অত্যধিক মাত্রায় মদ্যপান করেছিলেন বলে জানিয়েছেন। এ সময় তিনি চেতনাও হারিয়ে ফেলেন।

কয়েক ঘণ্টা পর জ্ঞান ফিরে এলে প্রস্রাবের চাপ অনুভব করেন তিনি। তখন তিনি বুঝতে পারেন, কাঁচের কফিনের ভেতরে শুয়ে আছেন, যার ওপরে মাটির স্তর।

আলভারেজ বলেন, আমরা নাচানাচি করছিলাম। অনুষ্ঠানের ফাঁকে প্রচুর পরিমাণ মদ্যপানও করেছিলাম। আমার শুধু মনে আছে যে, আমি বিছানায় শুয়ে আছি এবং প্রস্রাব করার জন্য উঠেছিলাম। কিন্তু আমি কোনোভাবেই নড়াচড়া করতে পারছিলাম না।

তিনি আরও বলেন, আমি ধাক্কা মেরে কফিনটি ভেঙেছিলাম। পরে গ্লাসের ফাঁক গলে ভেতরে ময়লা পড়তে শুরু করে। আমি অনেক চেষ্টা করে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হই। আমাকে জীবন্ত কবর দেয়া হয়েছিল।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply