গাইবান্ধায় দাফনের এক মাস পর কবর থেকে শিশুর মরদেহ উত্তোলন

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :

দাফনের এক মাস পর গাইবান্ধার সাদুল্লাপরে হাছিম রায়হান (২) নামে এক শিশুর মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

শনিবার (১২ আগস্ট) বিকেলে সাদুল্লাপুর উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের তাজনগর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে মরদেহটি উত্তোলন করা হয়। এ সময় গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইফতাখারুল রহমান উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত ১১ জুলাই তাজনগর গ্রামের রুবেল সরদার পরিবার নিয়ে পাশ্ববর্তী গ্রামে বিয়ের দাওয়াত খেতে যান। ওইদিন সেখান থেকে তার শিশু ছেলে হাছিম রায়হান নিখোঁজ হয়। পরদিন ১২ জুলাই বাড়ির পাশের একটি গভীর কূপে শিশু হাছিমের মরদেহ পাওয়া যায়। পরে মরদেহ তুলে তড়িঘড়ি করে ওইদিন রাতেই পারিবারিক করবস্থানে দাফন করা হয় শিশুটিকে।

পুলিশ বলছে, শিশুটির মৃত্যু নিয়ে পরবর্তীতে তার মা হোসনে মমতা তিথির সন্দেহ হয়। পরে তিনি বাদী হয়ে গত ২৪ জুলাই স্বামী-শ্বশুরসহ ৮ জনের নামে আদালতে হত্যা মামলা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সেরাজুল হক জানান, মামলা করার পর আদালত মরদেহ উত্তোলনের পর মর্গে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। সে মোতাবেক বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মরদেহ উত্তোলন করা হয়। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য উন্মোচন হবে বলেও জানান তিনি।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply