‘বিনা অপরাধে’ আড়াই বছর ধরে ঝিনাইদহ কারাগারে বন্দি অজ্ঞাত এক ব্যক্তি

|

বিনা অপরাধে আড়াই বছরের বেশি সময় ধরে ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে বন্দি আছেন অজ্ঞাত এক ব্যক্তি। তার বিরুদ্ধে নেই কোনো মামলা। পরিচয় না মেলায় কারাগারে থাকতে হচ্ছে মানুষটিকে। তার ভাষাও বোঝা যায় না।

আদালতের নথি অনুযায়ী, ২০১৯ সালে সদরের নগরবাথান এলাকায় হঠাৎ আবির্ভাব হয় তার। ভবঘুরে মানুষ, তার ভাষা বোঝে না কেউ। যার তার কাছে খাবার চাইতেন। একপর্যায়ে বিরক্ত হয়ে ব্যক্তি উদ্যোগেই অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় জিডি করা হয়। পরে তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়। আদালতের নির্দেশে পাঠানো হয় কারাগারে।

ঝিনাইদহ জেল সুপার আনোয়ার হোসেন জানান, ব্যক্তিটি একা একা থাকেন। কখনো কাউকে বিরক্ত করেননি। আমি চাই সে জেল থেকে বের হোক। বিনা অপরাধে সে জেলে থাকছে। সে তো অপরাধী না।

ঝিনাইদহ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মিজানুর রহমান বলেন, আদালত ইতোমধ্যে আদালত তাদের পক্ষ থেকে বিষয়টির ব্যাখ্যায় দিয়েছে। আমি আশা করি, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই ব্যক্তি দ্রুততম সময়ে কারাগার থেকে মুক্তি পাবে।

গত ৩১ জুলাই অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় খুঁজে বের করতে নির্দেশ দেন আদালত।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply