ফরিদপুরে পচা মাংস বিক্রির অভিযোগে জরিমানা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পৌরসভার সামনে থেকে পচা মাংস বিক্রির অপরাধে এক ব্যবসায়ীকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাকে জরিমানা করা হয়। একই সাথে তার কাছ থেকে ৫০ কেজি পচা মহিষের মাংস জব্দ করে তা ধ্বংস করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার (১২ আগস্ট) রাত দেড়টার দিকে ভাঙ্গা পৌরসভার সামনে খাবার হোটেলের সামনে রাখা একটি ফ্রিজিং গাড়ি থেকে অনেক দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। তখন স্থানীয়রা ওই গাড়ির চালককে গাড়িতে কী আছে জানতে চাইলে গাড়িতে মহিষের মাংস আছে বলে জানায়।

পরে স্থানীয় বাসিন্দারা সংবাদকর্মীদের বিষয়টি জানালে, উপজেলার গণমাধ্যমকর্মীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ নিয়ে হাজির হন। তৎক্ষণাৎ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজিম উদ্দিন ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে, গাড়ি তল্লাশি করে ভেতর থেকে ৫০ কেজি মহিষের পচা মাংস জব্দ করেন। একই সাথে মাংস সরবরাহকারী জাহিদকে আটক করেন।

আটক জাহিদ জানায়, তিনি দীর্ঘদিন মাংস সরবরাহের ব্যবসা করে আসছেন। এই মাংস ভারত থেকে আসে। পরে তার মতো ব্যবসায়ীরা ঢাকা থেকে মাংস সংগ্রহ করে ফ্রিজিং গাড়ির মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের হোটেল রেস্টুরেন্টে সরবরাহ করেন।

তিনি আরও বলেন, মাওয়া, কাওরাকান্দি, পুকুরিয়া, ভাঙ্গা, ভাটিয়াপাড়া, গোপালগঞ্জসহ আশেপাশের এলাকার হোটেল রেস্টুরেন্টে তিনি মাংস সরবরাহ করেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত আটক ব্যবসায়ী জাহিদকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং পচা মাংস জব্দ করে তা মাটি চাপা দিয়ে ধ্বংস করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আজিম উদ্দিন জানান, আটক মাংস সমূহ বৈধ। কিন্তু তা পচে গিয়েছিল, যা খাওয়ার অনুপযুক্ত। তাই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে জরিমানা করা হয়েছে ও গোসত জব্দ করে তা ধ্বংস করা হয়েছে।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply