মহামারির সময় তীব্র জ্বরে ভুগেছেন কিম জং উন

|

করোনা মহামারি চলাকালে তীব্র জ্বরে ভুগেছিলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) এ তথ্য নিশ্চিত করেন তার বোন এবং উপদেষ্টা কিম ইয়ো জং। খবর রয়টার্সের।

জানিয়েছেন, মহামারির ভয়াবহ সময়ে আক্রান্ত হয়েছিলেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা। কিন্তু দেশবাসীর কল্যাণের কথা চিন্তা করে তিনি যথাযথ বিশ্রাম গ্রহণ করেননি। করেছেন দফায় দফায় বৈঠক; নিয়েছেন স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ সব পদক্ষেপ।

দেশে করোনার সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য দক্ষিণ কোরিয়াকে দায়ী করেন কিম ইয়ো জং। অভিযোগ, ভাইরাস দূষিত লিফলেট বেলুনের মাধ্যমে সীমান্তে পাঠিয়েছিল প্রতিবেশী দেশ। সেখান থেকেই কোভিড-১৯ এর বিস্তার ঘটে। অবশ্য, সিউল বিষয়টিকে ভিত্তিহীন হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। তথ্য গোপনের জন্য পরিচিত উত্তর কোরিয়া মে মাসে প্রথমবার করোনাভাইরাস শনাক্তের ঘোষণা দেয়। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ লাখ মানুষ। কিন্তু মৃত্যু হয়েছে মাত্র ৭৪ জনের। বুধবারই মহামারির বিরুদ্ধে বড় বিজয় অর্জিত হয়েছে, এমন ঘোষণা দিয়েছেন কিম জং উন।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply