ডাকে অতিষ্ঠ হয়ে মোরগের বিরুদ্ধে মামলা দিলেন জার্মান দম্পতি

|

ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবেশীর মোরগের ডাকাডাকিতে আশপাশের বাসিন্দারা চরম অতিষ্ঠ হয়ে মোরগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন জার্মানির এক বয়স্ক দম্পতি। ওই দম্পতি বলেছেন, সকালবেলা থেকে শুরু হয়ে সারা দিনে প্রায় ২০০ বার ডাকে মোরগটি। যা তাদের জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে।

ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মোরগের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন জার্মানির ফ্রেডরিখ-উইলহেম কে (৭৬) এবং তার স্ত্রী জুত্তা। তারা বলেছেন, মাগদা নামের মোরগটি সকাল ৮টা থেকে ডাকাডাকি শুরু করে এবং সারাদিন চলে তার এই ডাক। যে কারণে এই দম্পতি পশ্চিম জার্মানির বাড সালজুফ্লেনে তাদের প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে মোরগটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার দাবি জানিয়েছেন। মোরগটির একদিনের ডাকাডাকি রেকর্ড করে আদালতের কাছে উপস্থাপন করেন তারা।

জুত্তা বলেছেন, অত্যাচারের কথা বর্ণনা করা কঠিন। কিন্তু ব্যাপারটি এমনই। ফ্রেডরিখ-উইলহেম বলেছেন, মোরগটির অসহ্য ডাকের কারণে দুই বছর আগে এক প্রতিবেশী বাসা ছেড়ে চলে গেছেন।

কিন্তু মাগদার মালিক মাইকেল ডি বলেছেন, তার বাসায় কয়েকটি মুরগি আছে। যে কারণে বাসায় একটি মোরগ রাখা জরুরি। ওই দম্পতির অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, মুরগির জন্যই মোরগ দরকার।

আদালত উভয়পক্ষের বক্তব্য শোনার পর মোরগটি অন্যত্র সরিয়ে নিতে মালিকের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন।

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply