‘কোচ হিসেবে ডোমিঙ্গো অনেক জ্ঞানী, কিন্তু আগ্রাসী নন’

|

বাংলাদেশের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। ছবি: সংগৃহীত

দলের যেমনটা দরকার, কোচিং স্টাফরা ঠিক সেটাই হয়তো দিতে পারছেন না। এমন ইঙ্গিত করে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনসের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেছেন, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের খেলার ও ভাবার ধরনে পরিবর্তন আনতে হবে। হতে হবে আরও বেশি আগ্রাসী। রাসেল ডোমিঙ্গো অনেক জ্ঞানী কোচ, কিন্তু তিনি ততোটা আগ্রাসী নন। খবরটি প্রকাশ করেছে ক্রিকইনফো।

জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে উভয় সিরিজই হারের পর তোপের মুখে পড়েছে বাংলাদেশ দল। যদিও সবশেষ ৬টি ওয়ানডে সিরিজের মধ্যে এটাই বাংলাদেশের প্রথম হার, তবে জিম্বাবুয়ের কাছে পরাজয়ে প্রকাশ্যে এসেছে দুর্বলতার কিছু গুরুতর ইস্যু। জালাল ইউনুস বলেছেন, কোচিং স্টাফের সবাই দারুণ নিবেদিত। তবে তাদের কাজের ধরন হয়তো কিছুটা ভিন্ন। কিছু কোচ স্বভাবগতই আগ্রাসী হন, আবার অনেকে তেমনটা নন। চন্ডিকা হাথুরুসিংহের কথা বলতে হয়; আমাদের যেমন আগ্রাসী মেজাজের কোচ দরকার ছিল তিনি ছিলেন তেমনটাই। আমাদের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো ক্রিকেটের ব্যাপারে অনেক জ্ঞান রাখেন। কিন্তু তিনি আগ্রাসী নন। আর আমাদের আগ্রাসনটাই দরকার।

ক্রিকইনফোর কাছে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনসের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, আমাদের ধারণা, খেলোয়াড়দের সঠিকভাবেই অনুপ্রাণিত করতে পারেন ডোমিঙ্গো। মাঠে গিয়ে আগ্রাসী হওয়ার ব্যাপারেও বলবেন তিনি। আর এখানেই পার্থক্যটা তৈরি হবে। আমাদের এমন কাউকে দরকার যিনি মন্থর ক্রিকেট থেকে আগ্রাসী মেজাজের খেলায় রূপান্তর ঘটাতে পারবেন, যেমনভাবে টি-টোয়েন্টি খেলা হয়। আমাদের কোচরা পেশাদার ও দক্ষ। তবে আগ্রাসী মনোভাব নিয়েও আলাপ করতে হবে। কারণ, এর ঘাটতি সত্যিই চোখে পড়ছে।

আরও পড়ুন: পরিবারকে সময় দিতে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বোল্টের অব্যাহতি

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply