ক্রাইমিয়ার বিমানঘাঁটিতে বিস্ফোরণ

|

রুশ নিয়ন্ত্রিত ক্রাইমিয়ার বিমানঘাঁটিতে ঘটলো বিকট বিস্ফোরণ। গতকাল মঙ্গলবারের (৯ আগস্ট) ওই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন একজন। খবর রয়টার্সের।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ভিডিওগুলো ছড়িয়ে পড়লেও কোনোভাবেই এটিকে হামলা বলতে নারাজ পুতিন প্রশাসন। দাবি, গোলাবারুদের গুদাম থেকে হয়েছে এই দুর্ঘটনা। কারণ খতিয়ে দেখতে চলছে তদন্ত।

রাশিয়ার নিয়োগ দেয়া ক্রাইমিয়ার প্রশাসনও বলছে, স্যাকি সামরিক ঘাঁটির বিস্ফোরণের সাথে ইউক্রেনের কোনো যোগসূত্র নেই। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ৩টা নাগাদ বিমানঘাঁটি এলাকায় অন্তত ১২টি বিস্ফোরণ হয়। যাতে- কেঁপে ওঠে পুরো এলাকা; ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক।

এ ব্যাপারে, ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকে কোন বিবৃতি আসেনি। তবে, দেশটির প্রেসিডেন্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন, ক্রাইমিয়া দখলের মাধ্যমেই যুদ্ধ শুরু করেছিলো রাশিয়া; সেখানেই ইতি ঘটবে লড়াইয়ের।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলদেমির জেলেনস্কি বলেন, ক্রাইমিয়াতে রুশ দখলদারদের উপস্থিতি গোটা ইউরোপ ও বিশ্বের জন্য হুমকি। যতোদিন ক্রাইমিয়া বেদখল থাকবে; কৃষ্ণ সাগর তীরবর্তী অঞ্চল নিরাপদ হতে পারবে না। এমনকি ভূমধ্যসাগর তীরের দেশগুলোতেও আসবে না দীর্ঘস্থায়ী শান্তি। কারণ, আমাদের শহরগুলোকে সামরিক ঘাঁটি বানিয়ে রেখেছে রাশিয়া। ক্রাইমিয়া থেকেই যুদ্ধের শুরু, সেখানেই ঘটবে ইতি।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply