কিম ও ট্রাম্প ‘কিন্ডার গার্টেনের ঝগড়াটে শিশু’


গত দু্ই দিন ধরে ট্রাম্প ও কিমের মধ্যে কথপোকথনকে কিন্ডার গার্টেনের দুই শিশুর মধ্যে ঝগড়ার সাথে তুলনা করেছেন রাশিয়ার পরাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লেভরভে। এর আগে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ট্রাম্পের ভাষণে প্রয়োজনে উত্তর কোরিয়াকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেয়া হবে, এরকম হুমকির জবাবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘বিকারগ্রস্ত’ বলে অভিহিত করে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন এবং বলেন,  ট্রাম্পই পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণবিক কর্মসূচির প্রেরণা। এ কথার জবাবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘কিম জং উন একটা পাগল।  ‘পাগলাকে এমন পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হবে, যা এর আগে কখনো কেউ দেখেনি’। এমনকি ট্রাম্প আরো বলেছিলেন, কিম জং উন আত্মহত্যা মিশনের রকেট ম্যান’।

এই দুইদেশের দুই নেতার এরকম বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চীনকে সাথে নিয়ে আমাদের যৌক্তিক উপায়ে সমাধানের পথে এগুতে হবে কোনভাবে কিন্ডার গার্টেনের ঝগড়াটে শিশুর আবেগ দিয়ে নয়, যাদের মধ্যকার ঝগড়া কেউ থামাতে পারে না’।

এদিকে দুই দেশের নেতাদের মধ্যে উত্তপ্ত মন্তব্য পাল্টা মন্তব্যের মধ্যেই উত্তর কোরিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপে নতুন এক নির্বাহী আদেশে সই করেছেন মার্কিন প্রেসডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

জাতিসংঘে মার্কিন প্রেসিডেন্টের আগ্রাসী ভাষণের জবাবে শুক্রবার এক বিবৃতিতে কোরিয়াকে হুমকি দেয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে চরম মূল্য দিতে হবে বলে সতর্ক করেন কিম জং উন। এমনকি শিগগিরই প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সবচেয়ে শক্তিশালী হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষা চালাবে পিয়ংইয়ং।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন এই প্রথম উত্তর কোরিয়ার নেতা এরকম সরাসরি বক্তব্য দিয়েছেন যার গুরুত্ব রয়েছে। এদিকে চীন গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে উভয়কে শান্ত হবার আহ্বান জানিয়ে বলে, বিষয়টি জটিল ও স্পর্শকাতর। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র  লু ক্যাং বলেন, ‘সকলকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণের চর্চা করতে হবে এমন কিছু করা যাবে না যা অন্য কে প্ররোচনা দেয়’।

 

টিবিজেট/









Leave a reply