করোনা নিয়ে যেসব ভুল ধারণা এখনো বদ্ধমূল মানুষের মনে

|

ছবি: সংগৃহীত।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের আড়াই বছরেরও বেশি সময় পার করেছে মানবজাতি। বর্তমানে করোনার সাথেই বসবাসের অভ্যাস গড়ে তুলেছি আমরা। মাস্ক ও ভ্যাকসিনের মতো সচেতনতামূলক কিছু পদক্ষেপের মাধ্যমে আমরা এখনও এই ভয়াবহ ভাইরাস থেকে নিজেদের রক্ষা করে যাচ্ছি।

করোনা সংক্রমণের প্রথম দিকে এ সম্পর্কে নানা ধরনের ধারণা ও গুজব ছাড়ায় মানুষের মাঝে। সময়ের সাথে সাথে সেগুলোও চলে যায়। তবে এখনও কিছু ভুল ধারণা আস্তানা করে আছে মানুষের মনে। এসব ভুল ধারণা নিয়েই অনেকে করোনার বিরুদ্ধে লড়ে চলেছেন প্রতিনিয়ত।

অনেকের ধারণা বর্ষাকালে এই ভাইরাস বেশি ছড়ায়। অথচ করোনাভাইরাস মোটেই ঋতুর উপর নির্ভর করে সংক্রমিত হয় না। যেকোনো সময়েই এই ভাইরাস মানবদেহে সংক্রমিত হতে পারে। তাপমাত্রার উপর এই ভাইরাসের সংক্রমণ নির্ভর করে না।

কিছু কিছু মানুষ মনে করেন কোভিড টিকার কারণে মাঙ্কিপক্স ছড়াচ্ছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট ভাইরাল হয়, যেখানে দাবি করা হয় কোভিড টিকা থেকেই মাঙ্কিপক্স ছড়াচ্ছে। সেখানে বলা হয়, অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড ভ্যাকসিনে ব্যবহৃত শিম্পাঞ্জি অ্যাডেনোভাইরাস ভেক্টর মাঙ্কিপক্স সংক্রমণের অন্যতম কারণ। তবে বিজ্ঞানীদের মতে, এই তথ্যের কোনো সত্যতাই নেই।

প্রথম থেকেই অনেকের ধারণা ছিল, পশুদের থেকেও মানুষ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত পারে। বিজ্ঞানীরা এই বিষয়ে এখনো কোনো তথ্য প্রমাণ পাননি। তবুও এখনো একদল মানুষের বিশ্বাস, পোষ্য থেকে শুরু করে যেকোনো পশু থেকে তারা সংক্রমিত হতে পারেন।

মাছ-মাংস থেকে কোভিড ছড়ায় বলেও অনেকে বিশ্বাস করেন। কিন্তু এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। চিকিৎসকদের মতে, করোনা সংক্রমিত হওয়ার পর মাছ-মাংসের মতো প্রোটিন খাওয়া জরুরি।

বেশি মাত্রায় মশলা খেলেই করোনা সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব বলে অনেকের মত। যদিও এমন অনেক মশলা আছে যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করে। তবে এই ভাইরাসে সংক্রমিত হলে মশলা খেলেই যে প্রতিরোধ করা যাবে তার কোনো প্রমাণ নেই।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply