টাকা না দেয়ায় বৃদ্ধ মাকে কুপিয়ে হত্যা, লাশের পাশেই রাত কাটালেন ছেলে

|

ছবি: প্রতীকী

মায়ের কাছ থেকে টাকা চেয়েছিল ছেলে। কিন্তু সেই টাকা দিতে পারেননি মা। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে নৃশংস কাণ্ড ঘটিয়ে বসলো ছেলে। টাকা না পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাকে কুপিয়ে খুন করার পর মৃতদেহের পাশেই সারারাত বসে থাকলো ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের জলপাইগুড়ির ডুয়ার্সের তেলিপাড়া চা বাগানের। মৃত মায়ের নাম বাবলি ওঁরাও (৬২)। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, অভিযুক্ত ছেলের নাম উত্তম ওঁরাও। মেয়ের বিয়ে হয়ে যাওয়ার পর থেকে বাবলি ছেলেকে নিয়ে বাড়িতে থাকতেন। প্রায়ই মদ্যপান করতো ছেলে। গতকালও মদ্যপান করে বাড়ি ফিরেছিল উত্তম। তারপরেই এরকম ঘটনা ঘটে। সোমবার সকালে মায়ের কোনো খবর না পেয়ে বাড়িতে গিয়ে মেয়ে জানতে পারেন মা খুন হয়েছেন। এরপরেই তেলিপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ করেন মেয়ে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, বাবলি ওঁরাও প্রতিদিন তার মেয়ের দোকানে চা খেতে যেতেন। তবে আজ তিনি না যাওয়ায় মেয়ের সন্দেহ হয়। এরপর বাড়ি গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় বিছানায় পড়ে রয়েছে তার মায়ের দেহ। আর ঘরের মধ্যে বসে আছে ভাই।

খবর পেয়ে তেলিপাড়া ফাঁড়ির পুলিশ গিয়ে যুবককে গ্রেফতার করেছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, মায়ের কাছে ২০ হাজার টাকা চেয়েছিল উত্তম। কিন্তু তা দিতে না পারায় প্রথমে তর্কাতর্কি এরপরে সে মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply