গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে স্কুলশিক্ষিকা আটক

|

কামাল হোসাইন, নেত্রকোণা

নেত্রকোণায় রোকেয়া আক্তার মিম (১৩) নামে এক শিশু গৃহকর্মীকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগে ফারজানা আক্তার (৩০) নামে এক স্কুলশিক্ষিকাকে আটক করেছে নেত্রকোণা মডেল থানার পুলিশ।

বৃহস্পতিবার নেত্রকোণা শহরের নাগরা এলাকার নিজ বাসা থেকে ওই শিক্ষিকাকে আটক করা হয়েছে। আটক ফারজানা স্কুলশিক্ষক রাসেল মাহমুদের স্ত্রী। নির্যাতনের শিকার মিমি চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামের অটোরিকশাচালক বাচ্চু মিয়ার মেয়ে।

শিশুটির সৎ মায়ের পরামর্শে বাবা তাকে ওই স্কুলশিক্ষিকা ফারজানার বাসায় গৃহকর্মীর কাজে দিয়েছে বলেও দাবি করেছে ওই কিশোরী।

নেত্রকোণা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ বোরহান উদ্দিন খান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গৃহকর্মী মিমকে নির্যাতনের খবর পায় পুলিশ। পরে ঘটনাস্থল থেকে মাথা আঘাত ও শরীরে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ওসি আরো জানান, মিমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের ক্ষতচিহ্ন ও ছ্যাঁকা দেওয়া পোড়া দাগ দেখা গেছে। আটকের পর নির্যাতনকারী ফারজানার পরিবারের সঙ্গে কিশোরীর বাবা বাচ্চু মিয়ার বিষয়টি নিষ্পত্তির চেষ্টা করলেও তাতে বাঁধা দেয় নির্যাতিত শিশু মিম।

নির্যাতিত শিশু মিম তার ওপরে চলা অমানবিক নির্যাতনের কথা পুলিশের কাছে বর্ণনা করে ফারজানাকে কঠোর শাস্তি দাবি করেছে। নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।









Leave a reply