এরদোগানের সাথে বৈঠকে রমজানকে নিয়ে গেছেন পুতিন!

|

ছবি: সংগৃহীত।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের সাথে বৈঠক করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রাশিয়ার সোচিতে শুক্রবার (৫ আগস্ট) হওয়া এই বৈঠকে চেচেন প্রজাতন্ত্রের প্রধান রমজান কাদিরভও রাশিয়ান প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে এসেছেন বলে এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে ইয়াহু নিউজ।

বৈঠকে তুর্কি উদ্যোগে ইউক্রেন থেকে শস্য রফতানি পুনরায় শুরু হওয়ার জন্য এরদোগানকে ধন্যবাদ দেন পুতিন। প্রসঙ্গত, শস্য রফতানি পুনরায় শুরুর জন্য রাশিয়া ও ইউক্রেনকে এক টেবিলে এনে একটি চুক্তি করেছিল তুরস্ক। ফলে খাদ্য সঙ্কট নিয়ে একটি বিরাট অচলাবস্থার অবসান হয়। কারণ, ইউক্রেন এবং রাশিয়া বিশ্বের বৃহত্তম শস্য রফতানিকারক দুই দেশ। শুক্রবার ৬০ হাজার টন শস্য বহনকারী আরও তিনটি জাহাজ শুক্রবার ইউক্রেনের কৃষ্ণ সাগর বন্দর ছেড়ে গেছে, যা ব্রিটেন, আয়ারল্যান্ড এবং তুরস্কের দিকে যাচ্ছে।

বৈঠক শুরু হওয়ার সময় পুতিন এরদোগানকে বলেছেন, বৈশ্বিক খাদ্য সমস্যাটি অত্যন্ত গুরুতর, বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য। সমস্যার সমাধানে আপনার সরাসরি অংশগ্রহণ এ সমস্ত দেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

তবে, বিভিন্ন প্রতিবেদনে বৈঠকের ভিন্ন উদ্দেশ্যের কথাও বলা হচ্ছে। ইউক্রেন সরকারের বরাত দিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট বলেছে, ইইউ-এর নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষিতে ছদ্মবেশে তেল রফতানির জন্য তুরস্কের তেল শোধনাগার, টার্মিনাল এবং জলাধারগুলিতে রাশিয়ার অংশীদারিত্ব চাইতে পারেন পুতিন।

গত ২৬ জুলাই বলা হয়েছিল, ইউক্রেনের যুদ্ধ নিয়ে আলোচনা করতে ৫ আগস্ট পুতিনের সাথে দেখা করবেন এরদোগান। সে সময় রুশ প্রেসিডেন্টের প্রেস সেক্রেটারি দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, সোচিতে সামরিক ও প্রযুক্তিগত সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করার পরিকল্পনা করছেন এই দুই নেতা।

সূত্র: ইয়াহু নিউজ ও দ্য গার্ডিয়ান।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply