২ হাজার টাকার জন্য পিতা-পুত্রকে পিটালো দাদন ব্যবসায়ী

|

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাট সদর উপজেলার বড় হেলকুন্ডা গ্রামের দাদন ব্যবসায়ীর বেধরক মারপিটে ওই গ্রামের দরিদ্র ঋনী নূর মোহাম্মদ (৫২) ও তার ছেলে রাব্বী মন্ডল (২২) আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, বড় হেলকুন্ডা গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে রাব্বী একই গ্রামের এরশাদুল ইসলামের ছেলে জুয়েল হোসেনের নিকট থেকে এক বছর আগে ৫ হাজার টাকা সুদের উপর ঋণ গ্রহনের পর কিছু দিন পূর্বে সুদসহ ৩ হাজার শোধও করেন। অভাবের কারণে সুদ ছাড়াও অবশিষ্ট ২ হাজার টাকা দিতে দেরি হওয়ায় রাব্বী ও তার বাবা নূর মোহাম্মদকে মাঝে মধ্যে গালিগালাজ ও হুমকি দিতেন দাদন ব্যবসায়ী জুয়েল ও তার বাবা এরশাদ। এরই এক পর্যায়ে গত ২ জুন রাতে হেলকুন্ডা গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিকের সামনে পাওনা টাকা আদায়ের জন্য ছেলে রাব্বীকে পেটাতে থাকে জুয়েল খবর পেয়ে তার বাবা নুর মোহাম্মদ এগিয়ে গেলে পিতা পুত্র দুজনকেই বেধরক পেটায়। এসময় স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে কিছুটা সুস্থ হলে গতকাল সোমবার গভীর রাতে রাব্বী বাদী হয়ে জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

জয়পুরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেলিম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।









Leave a reply