‘আর কোনো নারী যেন গৃহকর্মী হয়ে সৌদি আরবে না যায়’

|

আর কোন বাংলাদেশি নারী যেন গৃহকর্মী হয়ে সৌদি আরবে না যায় এমন আকুতি জানিয়েছেন ফিরে আসা নির্যাতিতরা। রোববার দিবাগত রাত সোয়া আটটার দিকে এয়ার এরাবিয়ার একটি ফ্লাইটে দেশে ফেরেন ২৯ বাংলাদেশে নারী গৃহকর্মী।

তারা জানান, কথায় কথায় শারীরিক নির্যাতন চালানো হতো তাদের ওপর। দেয়া হতো না বেতন, এমনকি খাবারও। দেশে ফেরার বিমান ভাড়া দিতে হবে বলে তাদের রাস্তায় ফেলে চলে যায় সৌদি মালিকরা।

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের সহায়তায় দেশে ফেরেন ২৯ হতভাগ্য নারী।

তাদের সবার ক্ষোভ সরকার ও দালালদের ওপর। এই নারীরা ফিরছেন, গণমাধ্যমের কাছে আগে থেকে এ খবর ছিল। ফলে বিমানবন্দরের ভেতর থেকে ক্লান্ত পায়ে বের হয়েই এই নারীরা একাধিক গণমাধ্যমের ক্যামেরার মুখোমুখি হন। নিজের মুখ ঢাকতে এই নারীরা ব্যস্ত হয়ে পড়েন। কেননা তাঁরা নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরেছেন এ খবর এলাকার লোকজন দেখে ফেললে লজ্জায় মুখ দেখানোর উপায় থাকবে না।

নারীদের বেশির ভাগই দেশে ফিরেছেন সে তথ্য তাঁর পরিবারের স্বজনদেরও জানানোর সুযোগ পাননি। খালি হাতে ফেরত আসার কারণে বেশির ভাগের হাতে মুঠোফোনও নেই। গণমাধ্যমকর্মীদের কেউ কেউ কোনো কোনো নারীর বাড়ির মুঠোফোনে ফোন করে তাঁদের দেশে ফেরার খবর জানাতে সহায়তা করেন। অনেকেই জানেন না রাতের বেলা তাঁরা কোথায় যাবেন।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply