মাথায় ব্যান্ডেজ লাগিয়ে পরীক্ষায় প্রক্সি, চিকিৎসক আটক

|

রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে আটক হলেন ডা. সমের রায় নামের এক চিকিৎসক। তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র এবং খুলনার একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের প্রভাষক বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার চতুর্থ শিফটে ধরা পড়লে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, রাহাত আমিন নামে একজনের হয়ে প্রক্সি দিতে এসেছিলেন ডা. সমের রায়। তাকে যেন চেনা না যায় এ কারণে মাথায়, নাক ও হাতে ব্যান্ডেজ বেঁধে এসেছিলেন। একই সঙ্গে যার হয়ে প্রক্সি দিতে এসেছিলেন, সেই রাহাত আমিনকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কৌশিক আহমেদ বলেন, সন্দেহজনক অবস্থায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি পরিচয় গোপন করেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের মুখে তিনি নিজের চিকিৎসক পরিচয়ের কথা স্বীকার করেন। নিজেকে খুলনা মেডিকেল কলেজের কে-২৪ ব্যাচের শিক্ষার্থী এবং বর্তমানে খুলনার গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষক বলে দাবি করেন। আমরা তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছি।

প্রসঙ্গত, এদিন আরও তিনজন প্রক্সি পরীক্ষা দিতে এসে আটক হয়েছেন। তাদেরও এক বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: হিরো আলমের মুচলেকা; জীবনেও আর রবীন্দ্র ও নজরুল সঙ্গীত করবেন না

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply