পশ্চিমা অস্ত্রের সফল প্রয়োগ করছে ইউক্রেনীয় সেনারা: জেলেনস্কি

|

ছবি: সংগৃহীত।

অবশেষে পশ্চিমা অস্ত্রের সুফল পাচ্ছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। এমন দাবি করেছেন প্রেসিডেন্ট ভোলদেমির জেলেনস্কি। জানান, রাশিয়ার একাধিক অস্ত্রের গুদামসহ বেশ কিছু ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে কিয়েভ সেনারা। মস্কোর দখলকৃত এলাকাগুলো পুনরুদ্ধারেও জোরালো অভিযানের দাবি করেন জেলেনস্কি। যদিও, দোনেৎস্কসহ ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে অব্যাহত আছে রুশ হামলা। টানা মিসাইল ও গোলাবর্ষণ চলছে স্লোভিয়ানস্ক, বাখমুত, খারকিভে। খবর ইউক্রেন ফরমের।

বিরতিহীন হামলা চলছে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর স্লোভিয়ানস্ক ও আশপাশের এলাকায়। মুহুর্মুহু গোলাবর্ষণ চলছে দক্ষিণে মাইকোলাইভ আর উত্তর-পূর্বে খারকিভে। ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে নিপ্রোপেত্রোভস্ক শহর। বুধবার (৬ জুলাই) দূরপাল্লার মিসাইলে বিধ্বস্ত হয় খারকিভের বিশ্ববিদ্যালয়।

অবশ্য ফ্রন্টলাইনে বেশ কিছু এলাকায় রুশ বাহিনীকে ঠেকানোর দাবি করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলদেমির জেলেনস্কি। তিনি বলেন, পশ্চিমা অস্ত্রের সফল ব্যবহার করছে তার সেনারা। হামলা চালিয়েছে একাধিক রুশ অস্ত্রের গুদামে। অনেক দখলকৃত এলাকা পুনরুদ্ধারের পথে বলেও দাবি করেন জেলেনস্কি।

প্রেসিডেন্ট বলেন, দখলদারদের ভাবা উচিত নয় তারা এখানে আজীবন থাকবে আর অস্ত্রের ক্ষমতা দেখাবে। দেশবাসীকে জানাতে চাই, অনেক দখলকৃত এলাকাই পুনরুদ্ধারের পথে আমাদের সেনারা। দক্ষিণাঞ্চল ও দোনবাসে লড়ছে তারা। খারকিভেও শত্রুদের মোকাবেলা করছে। লক্ষ্যভেদে নির্ভুল পশ্চিমা অস্ত্রগুলো। ঠিক যেমন প্রয়োজন ছিল।

জার্মানি ও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে আবারও অস্ত্র সহায়তা নিয়ে কথা বলেছেন বলে জানান ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এদিকে, বুধবার রুশ বিচ্ছিন্নতাবাদী অধ্যুষিত দোনেৎস্কের একটি আবাসিক এলাকায় মিসাইল হামলায় মৃত্যু হয় দুই শিশুর। এই হামলার জন্য ইউক্রেনীয় সেনাদের দায়ী করছে রুশ বাহিনী।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply