কাল শেষ হচ্ছে ঈদের আগাম টিকিট বিক্রি

|

আগামীকাল মঙ্গলবার (৫ জুলাই) শেষ হবে কোরবানির ঈদের আগাম টিকিট বিক্রি। এদিন ঈদের আগের দিনের অর্থাৎ ৯ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে।

দেশে ঈদ উৎসব মানে, স্বপ্ন যাবে বাড়ি। এজন্য এবারও রেলস্টেশনে যাত্রীদের ছিল অপেক্ষা। নির্ঘুম রাত পার, গরমে ভোগান্তি সহ্য করে টিকিট কেটেছেন তারা। মূলত, এবার অনলাইনে ঈদের আগাম টিকিট বিক্রিতে ছিল সার্ভার জটিলতা। এ কারণে অ্যাপে প্রবেশে করতে বাধার সম্মুখীন হন যাত্রীরা। তাই কাউন্টারে ছিল শত শত মানুষ।

যাত্রীদের অভিযোগ, অনলাইনে টিকিট না পাওয়ার পাশাপাশি কাঙ্খিত আসন ও গন্তব্যের টিকিট পাননি তারা।

এদিকে, ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রির চতুর্থ দিনেও (সোমবার) সার্ভার জটিলতা কাটেনি। আজও সকালে টিকিট বিক্রির শুরুতেই সার্ভার জটিলতায় অ্যাপে প্রবেশ করা যায়নি।

গতকাল থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনে অপেক্ষা করে অনেকে ৮ জুলাইয়ের রেলের টিকিট কেটেছেন। আবার অনেকে পাননি। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও যারা টিকিট পাননি, তারা আবার অপেক্ষা করছেন টিকিটের জন্য।

যাত্রীদের অভিযোগের জবাবে কমলাপুর রেলস্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার মাসুদ সারওয়ার জানান, বিদ্যমান ব্যবস্থায় এর থেকে ভালো সেবা দেয়া সম্ভব নয়।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২ জুলাই ঈদের আগাম টিকিট নিয়ে যাত্রীদের চরম ভোগান্তির বিষয়ে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। ওইদন সকালে কমলাপুর রেলস্টেশন পরিদর্শন শেষে তিনি বলেন, চাহিদার তুলনায় ট্রেনের সংখ্যা কম। সক্ষমতা বৃদ্ধি না হওয়া পর্যন্ত এই ভোগান্তি থাকবে।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply