যুক্তরাজ্যে গিয়ে বিদেশি শিক্ষার্থীরা পরিণত হচ্ছে ‘সস্তা শ্রমিকে’

|

ছবি: সংগৃহীত।

যুক্তরাজ্যে বাইরের দেশ থেকে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে এনে রীতিমতো দাসে পরিণত করছে একটি বড় মানবপাচারকারী চক্র। যুক্তরাজ্যে পৌঁছানোর পর তাদের ভিসা আটকে রেখে কম মজুরিতে কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। সম্প্রতি এমনই একজন সন্দেহভাজন শিক্ষার্থীর খোঁজ পাওয়ার পর বিষয়টি সামনে এসেছে। এ নিয়ে তদন্ত করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য অবজার্ভার। এই পত্রিকার বরাত দিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দ্য গার্ডিয়ান।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশকিছু বিদেশি শিক্ষার্থীদের অনুপস্থিতি লক্ষ করা যাচ্ছে। বিশেষ করে ভারতীয় শিক্ষার্থীর এ প্রবণতা বেশি। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সংক্রান্ত সকল প্রক্রিয়া শেষে যুক্তরাজ্যে পৌঁছানোর পর থেকেই নিখোঁজ হচ্ছে। কোনো ক্লাস-পরীক্ষায় তাদের আর দেখা যাচ্ছে না। এ নিয়ে তদন্ত করে এমনই এক সন্দেহভাজন শিক্ষার্থীর খোঁজ পেয়েছে দ্য অবজার্ভার। ওই শিক্ষার্থীও যুক্তরাজ্যে পৌঁছানোর পর থেকে আর কোনো ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। তার খোঁজ পাওয়া যায় তার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহুদূরে কর্মরত অবস্থায়।

প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, বিদেশে পড়তে আসা এসব শিক্ষার্থী ভয়াবহ এক মানবপাচারকারীর খপ্পড়ে পড়ছে। তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করিয়ে যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করা মাত্রই ভিসা আটকে দেয়া হচ্ছে। এরপর অনেক দূরে নিয়ে গিয়ে খুব কম মজুরিতে তাদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কাজ করানো হচ্ছে। সপ্তাহে এসব শিক্ষার্থীর দিয়ে ৮০ ঘণ্টা কাজ করানো হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

শিক্ষার্থীর শ্রমশোষণের এ তথ্য পৌঁছেছে দেশটির সরকার সংশ্লিষ্ট ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছেও। দোষীদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় আনার কথা জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এ নিয়ে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার আহ্বানও জানানো হয়েছে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply