‘গ্রেট হিমালয়ান ট্রেইল’ অভিযানে যাচ্ছেন বাংলাদেশের শাকিল

|

বাংলাদেশের পর্বতারোহী ইকরামুল হাসান শাকিল। ছবি: সংগৃহীত

হিমালয় পর্বতমালার মধ্য দিয়ে নেপালের পূর্ব থেকে পশ্চিমাঞ্চলে যাওয়ার পথটিই ‘গ্রেট হিমালয়ান ট্রেইল’। দুর্গম পথটি ১ হাজার ৭০০ কিলোমিটার দীর্ঘ। অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয়দের পছন্দের এ পথ পাড়ি দিতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের পর্বতারোহী ইকরামুল হাসান শাকিল।

সবকিছু ঠিক থাকলে, বাংলাদেশের পর্বতারোহী শাকিল আগামী ৬ জুলাই ২০২২ নেপালের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। এরপর, নেপাল-তিব্বত সীমান্তবর্তী নেপালের হিলসা শহর থেকে অভিযান শুরু করবেন তিনি। ১৫০ দিনের অভিযানে পা রাখবেন এভারেস্ট, ধলাগিরি, অন্নপূর্ণাসহ আট হাজার মিটারের আটটি পর্বতশৃঙ্গের বেজক্যাম্পে। নেপাল-ভারত সীমান্তের ইলাম এলাকায় শেষ হবে অভিযান।

বাংলাদেশের পর্বতারোহী ইকরামুল হাসান শাকিল। ছবি: সংগৃহীত

ইতোপূর্বে হিমালয়ে একটি ৭ হাজার মিটার এবং ৬ হাজার মিটারের অন্য আরেকটি সামিট জয় করেছেন ইকরামুল হাসান শাকিল। গাজীপুরের এই তরুণ জয় করছেন হিমালয়ের ‘কেয়াজো-রি’, ‘দ্রৌপদী-কা-ডান্ডা-২’ ও ‘হিমলুং’ পর্বতশৃঙ্গ। ‘গ্রেট হিমালয়ান ট্রেইল’ অভিযানটি স্পনসর করছে দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেড এবং বাংলা মাউন্টেনিয়ারিং অ্যান্ড ট্রেকিং ক্লাব।

ইকরামুল হাসান শাকিল তার অভিযানের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে বলেন, গ্রেট হিমালয় ট্রেইলে অভিযানের জন্য আমি দীর্ঘদিন থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছি। কোভিডের কারণে অভিযান শুরু করতে পারিনি। যাই হোক, অবশেষে অভিযান শুরু হতে যাচ্ছে। অভিযান শেষ করতে প্রায় ১৫০ দিনে ১৭০০ কিলোমিটার দুর্গম হিমালয়ের পথ পাড়ি দিতে হবে। প্রায় ১৮টি কঠিন পাস অতিক্রম করতে হবে; যার মধ্যে বেশির ভাগ পাসের উচ্চতা ৫০০০-৬০০০ মিটারের মধ্যে। এই অভিযানের সব থেকে কঠিন শেরপানি কোল (৬১৮০ মিটার) অতিক্রমও করতে হবে। এটি মূলত আমার সলো অভিযান।

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply