নড়াইলে অধ্যক্ষ লাঞ্ছনা মামলার অন্যতম আসামি রনিসহ চারজনের ৩ দিনের রিমান্ড

|

আসামি রহমতউল্লাহ রনি।

নড়াইলের মীর্জাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার অন্যতম আসামি রনি বিশ্বাসসহ চারজনের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুরে শুনানি শেষে এ আদেশ দেন সদর আমলী আদালতের বিচারক জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমাতুল মোর্শেদা।

মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত, শিক্ষকদের ৩টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়া এবং পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার ঘটনায় গত ২৭ জুন রাতে পুলিশ বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে ওই রাতেই ৩ জনকে গেফতার করা হয়। পরে গত ২৯ জুন মামলার অন্যতম আসামি রহমত উল্লাহ রনি ওরফে রনি বিশ্বাসকে খুলনার বয়রা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলায় গ্রেফতার হওয়া ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র রাহুল দেব রায় নিজের ফেসবুক আইডিতে নূপুর শর্মাকে নিয়ে পোস্ট দেন। গত ১৮ জুন রাহুল কলেজে আসার পর তার সহপাঠীরা বিষয়টি কলেজ অধ্যক্ষকে জানালে তিনি উপস্থিত শিক্ষকদের পরামর্শক্রমে রাহুলকে স্থানীয় বিছালী পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার চেষ্টা করেন। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা বিক্ষুদ্ধ হয়ে ক্যাম্পসে শিক্ষকদের ৩টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে ফেলে। একপর্যায়ে পুলিশের লাঠিচার্জ ও এলাকাবাসীর ইটপাটকেল নিক্ষেপে কলেজ শিক্ষক, পুলিশসহ ১২ জন আহত হয়। বিকেলে পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার বিশ্বাসসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং এ সময় অভিযুক্ত রাহুলকে পুলিশ আটক করে পরদিন তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply