দেহ উদ্ধারের ২৬ ঘণ্টা পর পাওয়া গেল কদর আলীর মাথা

|

হবিগঞ্জে দেহ উদ্ধারের ২৬ ঘণ্টা পর শায়েস্তাগঞ্জের একটি পুকুর থেকে শ্রমিক কদর আলীর (৪৮) বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে শনিবার (২ জুলাই) কদর আলীর মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে শহরের মাছুলিয়া এলাকায় খোয়াই নদীর বাঁধ থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। কদর আলী পৌর এলাকার জঙ্গলবহুলা গ্রামের মঙ্গল মিয়ার ছেলে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, কদর আলী খোয়াই নদী থেকে বালু উত্তোলনের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর ফেরেনি সে। পরিবার জানায়, কদর আলী মাজারভক্ত ছিলেন। তাই বাড়ি না ফেরায় সে কোনো মাজারে গিয়েছে বলে মনে করেছিলেন তারা। পরে গতকাল স্থানীয়রা একটি মাথাবিহীন মরদেহ নদীর বাঁধে পড়ে থাকতে দেখে। পরিবারের লোকজন তাকে কদর আলী বলে শনাক্ত করে।

হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে।

এরই মধ্যে পুলিশ সুপারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। কোনো অভিযোগ না পেলেও এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তাদের দাবি, দ্রুততম সময়ের মধ্যে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply