নোয়াখালীতে স্বামীর সাথে ফোনে কথা বলা শেষে তরুণীর আত্মহত্যা

|

ফাইল ছবি

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় স্বামীর সাথে মুঠোফোনে কথা শেষে গলায় ফাঁস দিয়ে এক জান্নাতুল নাঈম (১৯) নামের এক তরুণী আত্মহত্যা করেছেন। তবে তাৎক্ষণিক পুলিশ ও নিহতের পরিবার আত্মহত্যার সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ জানাতে পারেননি।

শনিবার (১ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এর আগে, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার চাপরাশিরহাট ইউনিয়নের উপদ্দি লামছি গ্রাম থেকে পুলিশ এ মরদেহ উদ্ধার করে।

এর আগে, শনিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে নিজ শয়ন কক্ষের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই তরুণী।

এ তথ্য নিশ্চিত করে কবিরহাট থানার ওসি মো.রফিকুল ইসলাম বলেন, কিছুদিন আগে পরিবারের কাউকে না জানিয়ে মুঠোফোনে ওই কিশোরী ফেনীর এক ছেলেকে বিয়ে করেন। তার সঙ্গে প্রায়ই ফোনে কথা বলতেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে ফোনে কথা বলা শেষে কাউকে কিছু না জানিয়ে নিজের শোয়ার ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন নাঈম। কিছুক্ষণ পর পরিবারের লোকেরা তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

ওসি আরও জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় এনে রাখে। শনিবার সকালে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply