কক্সবাজারে দুর্ধর্ষ হুরাইয়া বাহিনীর প্রধানসহ তিনজন আটক

|

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের টেকনাফের ডাকাত হুরাইয়া বাহিনীর প্রধান হুরাইয়াসহ তিনজনকে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ে কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ এর সিপিএসসি কমান্ডার এএসপি জামিলুল হক এসব তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শীলখালী গ্রামের আবু হুরাইরা মোহাম্মদ (২৬), একই এলাকার মোরশেদ আলম (২১), ঝুপপাড়া এলাকার নুরুল ইসলাম (৩৮)।

গ্রেফতারকৃতদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডস্থ হাজমপাড়া এলাকার ঝাউবাগানের ভেতরে মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ২টি এসবিবিএল, ২টি থ্রিকোয়ার্টারগান, ২টি দেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও ডাকাতির ৮টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

এএসপি জামিলুল হক জানান, গত ৭ জুন কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শীলখালী এলাকার একটি বিয়ে বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ওই ডাকাতির ঘটনায় ডাকাত সদস্যরা কয়েক ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা ও কয়েকটি স্মার্টফোনসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এছাড়াও গত ১৮ জুন টেকনাফের হোয়াইক্যং-শাপলাপুর সড়কের শাপলাপুর ঢালার মুখে একদল সংঘবন্ধ ডাকাত রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে বিভিন্ন যানবাহন থামিয়ে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইলসহ বিভিন্ন মালামাল ডাকাতি করে।

ঘটনাদুটিতে অজ্ঞাতদের আসামি করে টেকনাফ থানায় মামলা হয়। এ মামলায় কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছিল তারা। তাদের দেয়া তথ্যেও ভিত্তিতে ডাকাত চক্রের মূলহোতা আবু হুরাইরা ও তার ডানহাত মোরশেদ ও নুরুল ইসলামের কথা জানতে পারে র‍্যাব।

পরে গোয়েন্দাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় তাদের।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply