ধরলার পানি বিপৎসীমার ১৪ সেমি ওপরে, পানিবন্দি ১৫ হাজার পরিবার

|

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটে ধরলা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৪ সেন্টিমিটার ওপরে ও তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে হলেও পানিবন্দি রয়েছে ১৫ হাজার পরিবার।

গতকাল বুধবার তিস্তার পানি ৭ সেন্টিমিটার ও ধরলার পানি বিপৎসীমার ২৮ সেন্টিমিটার ওপরে ছিল। এতে নদী তীরবর্তী চরের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন মানুষজন।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সকাল ৬টায় তিস্তার পানি বিপৎসীমার নিচে হলেও ধরলার পানি ১৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে হাতীবান্ধা উপজেলার ডাউয়াবাড়ি, কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা, দুগাপুর, সদর উপজেলার গোকুন্ডা, খুনিয়াগাছ, রাজপুর, মোগলহাট, কুলাঘাট, বড়বাড়ী ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন মানুষজন। তারা এখনো কোনো ত্রাণ সহায়তা পাননি।

তবে জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, পর্যাপ্ত ত্রাণ মজুত রয়েছে। তালিকা পেলে তা পানিবন্দি মানুষদের মাঝে বিতরণ করা হবে।
আরও পড়ুন: সুনামগঞ্জে নদ-নদীর পানি আবারও বাড়ছে
ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply