শিক্ষককে অপমান ও হত্যার তদন্ত চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

|

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। ফাইল ছবি।

শিক্ষকের গলায় জুতা পরানোসহ হত্যার ঘটনায় তদন্ত চলছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো দায় থাকলে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

বুধবার (২৯ জুন) দুপুরে সচিবালয়ে ঈদের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক শেষে এ কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। নড়াইলে শিক্ষককে জুতার মালা পরানোর ঘটনা নিয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, উত্তেজিত জনতা এতো বেশি ক্ষুব্ধ হয়ে যাওয়ায় ডিসি এসপি নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি। তিনি আরও বলেন, তদন্ত করা হচ্ছে, কারো দায় থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এই ঘটনাটা হঠাৎ করেই ঘটে যায়। আমরা সত্যিই দুঃখিত যে, একজন শিক্ষককে জুতার মালা পরিয়ে দিয়েছে উত্তেজিত জনতা। কতটা নৈতিক অবক্ষয় ঘটেছে তা আপনারা নিজেরাই অনুমান করুন। তবে আমাদের যা করণীয়, তা আমরা করেছি। তার বাবাকে ধরেছি। খুব শীঘ্রই তাকেও ধরে ফেলবো। এবং আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান আরও জানান, এবার সারাদেশে ৪ হাজারের বেশি পশুর হাট বসবে। হাটে যেন চাঁদাবাজি না হয় সেক্ষেত্রে ব্যবস্থা নেয়া হবে। হাটে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাওয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি। এছাড়া, ঈদের পূর্বে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন ভাতা পরিশোধ ও ধাপে ধাপে ঈদের ছুটি দেয়ার আহ্বান জানান আসাদুজ্জামান খান।

এ সময় পদ্মা সেতু নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুতে মোটর সাইকেলের ক্ষেত্রে যে নির্দেশন রয়েছে তা বহাল থাকবে।

আরও পড়ুন: শিক্ষক হত্যা: কুষ্টিয়া থেকে হত্যাকারী জিতুর বাবা আটক

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply