যমুনা টিভির সাংবাদিককে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা মামলা; তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ

|

সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়কালে বাদীপক্ষের আইনজীবী এখলাছ উদ্দীন ভুঁইয়া।

যমুনা টিভির সাংবাদিককে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা মামলায় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। সাক্ষ্যে আসামিদের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী।

বুধবার (২৯ জুন) সকালে মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন সাক্ষ্য দেন। পাশাপাশি হত্যাচেষ্টার শিকার শাকিল হাসানের কোরোসিন ভেজা পোষাক জব্দ আলামত হিসেবে আদালতে উপস্থাপন করা হয়।

আসামির আইনজীবীর জেরায় তদন্ত কর্মকর্তা জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দুই গণমাধ্যম কর্মীর ওপর হামলার প্রমাণ পাওয়া যায়। সাক্ষীদের সাক্ষাৎকার এবং নথিতে মামলাটি সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করা গেছে তাই দৃষ্টান্তমূলক সাজা প্রত্যাশা করেন বাদীর আইনজীবী এখলাছ উদ্দীন ভুঁইয়া।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে রাজধানীর চকবাজার এলকায় অবৈধ পলিথিন উৎপাদন নিয়ে প্রতিবেদন করতে গেলে আসামি রহিম, জব্বার, জাকির প্রমুখের নেতৃত্বে আসামিরা যমুনা টিভির সিনিয়র রিপোর্টার শাকিল হাসান এবং ক্যামেরাপারসন শাহীন আলমের ওপর হামলা করে। এ সময় কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে শাকিলকে হত্যার চেষ্টা করে আসামিরা।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply