ভাইকে ৪৩৪ মিটার দীর্ঘ চিঠি লিখলেন বোন, কাগজের ওজন ৫.২৭ কেজি!

|

কৃষ্ণপ্রিয়া ও তার ভাই কৃষ্ণপ্রসাদ। ছবি: সংগৃহীত

ভাইকে উদ্দেশ্য করে ৪৩৪ মিটার দৈর্ঘ্যের একটি চিঠি লিখেছেন বোন। ওই দীর্ঘ চিঠির ওজন দাঁড়িয়েছে ৫ কেজি! বিশ্ব ভাই দিবস উপলক্ষে পেশায় ইঞ্জিনিয়ার কৃষ্ণপ্রিয়োর লেখা সেই চিঠি গড়তে চলেছে নতুন রেকর্ড। ঘটনাটি ভারতের কেরালা রাজ্যের। খবর নিউজ এইটিনের।

খবরে বলা হয়, কাজের চাপে নিজের ভাইকে বিশ্ব ভাই দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে ভুলে গিয়েছিলেন কৃষ্ণপ্রিয়ো। এতে মনঃক্ষুণ্ণ হয়ে সেদিন কৃষ্ণপ্রিয়োর ২১ বছর বয়সী ভাই, কৃষ্ণপ্রসাদ হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ দিয়েছিলেন বোনকে। কিন্তু কাজের চাপ এতোই বেশি ছিল যে, মেসেজগুলোও দেখার সময় পাননি কৃষ্ণপ্রিয়ো। এতে আরও মন ভাঙে ভাইয়ের। বোনকে তাই হোয়াটসঅ্যাপে ব্লক করে দেন তিনি।

কৃষ্ণপ্রিয়া বলেন, আমি ওকে শুভেচ্ছা জানাতে ভুলে গিয়েছিলাম। আমি এইদিনে সাধারণত ওকে ফোন করি বা ভাই দিবসের একটি টেক্সট পাঠাই, কিন্তু কাজের ব্যস্ততার কারণে এ বছর আমি ভুলে গিয়েছিলাম।

ভুলে যাওয়ার ‘মাসুল’ হিসেবে ভাইয়ের অভিমান ভাঙতে গত ২৫ মে তিনি ভাইকে উদ্দেশ্য করে চিঠি লিখতে শুরু করেন। প্রথমে একটি এ-ফোর সাইজের কাগজে লিখতে শুরু করেছিলেন কৃষ্ণপ্রিয়ো। তবে শীঘ্রই বুঝলেন, নিজের মনের কথা গুছিয়ে লিখতে আরও অনেক কাগজ প্রয়োজন হবে তার!

কৃষ্ণপ্রিয়োর ভাষ্যে, আমি লম্বা আকৃতির কাগজ কিনতে একটি স্টেশনারি দোকানে গিয়েছিলাম। কিন্তু দোকানি আমাকে বললো, লম্বা কাগজ বলতে তার কাছে কেবল বিলিং পেপারের রোলই পাওয়া যাবে। এরপর আমি ওই দোকান থেকে ১৫ রোল কাগজ কিনি।

কৃষ্ণপ্রিয়ো আরও বলেন, আমার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ ছিল লেখা শেষ হলে পোস্ট অফিসে নিয়ে যাওয়ার আগে। কারণ প্রতিটি রোল ছিল ৩০ মিটার। আমি সেলো টেপ এবং গাম ব্যবহার করে এটিকে একটি বাক্সের মধ্যে একত্রিত করেছিলাম। পোস্ট অফিস কোনো প্রশ্ন ছাড়াই প্যাকেজ গ্রহণ করেছে। এটির ওজন ছিল ৫.২৭ কিলোগ্রাম।

প্রতিটি রোল ভর্তি করে ভাইকে নিজের মনের কথা লিখেছেন কৃষ্ণপ্রিয়ো। আর পুরো চিঠিটি লিখতে তার সময় লেগেছে মাত্র ১২ ঘণ্টা। কৃষ্ণপ্রিয়োর লেখা ওই চিঠিকে বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ চিঠি হিসেবে তালিকাভুক্তির মর্যাদা দিতে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে আবেদন করা হয়েছে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply