শ্বাসরোধেই হত্যা করা হয় স্কুলছাত্র শিহাবকে

|

নিহত স্কুলছাত্র শিহাব।

স্টাফ করেসপনডেন্ট, টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইল শহরের সৃষ্টি একাডেমিক স্কুলের ছাত্রাবাসে শিশু শিক্ষার্থী শিহাব মিয়াকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের। রোববার (২৬ জুন) বিষয়টি টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় হত্যা মামলা করা হবে জানিয়েছে শিহাবের পরিবার। নিহত শিহাব সখীপুর উপজেলার বেরবাড়ী গ্রামের প্রবাসী ইলিয়াস হোসেনের ছেলে।

এর আগে গত সোমবার (২০ জুন) বিশ্বাস বেতকা সুপারি বাগান এলাকার স্কুলের ছাত্রাবাস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় শিক্ষকরা। পরে শিহাবের পরিবারকে জানানো হয় সে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। পরে আবার ফোন করে জানানো হয়, শিহাব মাথা ঘুরে পড়ে গেছে।

শিহাবের মরদেহ উদ্ধারের পর মৃত্যুর কারণ ও হত্যায় জড়িতদের শাস্তির জন্য দফায় দফায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। শিহাবের বাবা শফিকুল ইসলাম বলেন, আমার ছেলেকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করার জন্য সৃষ্টি একাডেমিক স্কুলে দিয়েছিলাম। আগে জানতাম সৃষ্টির মালিক রিপন মানুষ গড়ার কারখানা খুলছে। আমার ছেলেকে হত্যার পর জানলাম রিপন মানুষ হত্যার কারখানা খুলছে। আমার ছেলেকে যেভাবে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে, ঠিক সেইভাবে আসামদের ফাঁসির দাবি করছি।

এ নিয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন জানান, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন এখনও তার হাতে আসেনি। তবে সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান জানান, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর জানতে পারি শিহাবকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply